Uttar Pradesh: বিয়ের শোভাযাত্রা থেকে করোনা আক্রান্ত বরকে সোজা কোয়ারেন্টিন সেন্টারে পাঠাল পুলিশ
Representational image | (Photo Credits: Unsplash)

হামিরপুর (উত্তরপ্রদেশ), ২৬ মে: বর টোপোর মাথায় দিয়ে বিয়ের সাজে ঘোড়ায় উঠে বিয়ে করতে বেরিয়ে পড়তে যাচ্ছিল। উত্তরপ্রদেশের হামিরপুরের (Uttar Pradesh Hamirpur) বাকছা গ্রামে ধর্মেন্দ্রর বিয়ের শোভাযাত্রাটা বেশ লম্বাই হয়েছিল। কিন্তু ধর্মেন্দ্র (Dharmendra)-র করোনার রিপোর্টটা তখনই হাতে এসে পৌঁছ/ পুলিশ-প্রশাসনের কর্তাদের কাছে। পুলিশ সঙ্গে সঙ্গে গিয়ে ধর্মেন্দ্রকে বিয়ের শোভাযাত্রা থেকে তুলে নিয়ে কোয়ারেন্টিন সেন্টারে পাঠিয়ে দেয়। আরও পড়ুন: William Shakespeare: দুনিয়ার প্রথম করোনা টিকা নেওয়া ব্যক্তির মৃত্যু

বিয়ে করতে যাওয়ার সময়ই বরের সাজে থাকা ধর্মেন্দ্রর রিপোর্ট কোভিড পজেটিভ আসে। ছাতনাতলা নয় ধর্মেন্দ্রকে যেতে হয় কোভিড কোয়ারেন্টিন সেন্টারে। ডাক্তাররা জানান, ধর্মেন্দ্র এখন সুস্থ আছে। সেভাবে কোনও করোনার উপসর্গ তাঁর নেই। ধর্মেন্দ্র সংস্পর্শে যারা এসেছিল তাদের সবাইকে আইসোলেশনে থাকার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। ধর্মেন্দ্র একবার করোনা থেকে সেরে উঠলে, ফের নতুন করে বিয়ের দিন ঠিক হবে বলে জানা গিয়েছে।

ক দিন আগে ওডিশায় ঠিক একই ধরনের ঘটনা ঘটে। "ওঠো বর তোমার করোনা হয়েছে, তাই মণ্ডপ ছেড়ে আইসোলেশনে চলো''। হয়তো এমন কিছুই বলা হয়ে থাকবে ওডিশার (Odisha) এক বরকে। কনের গলায় মালা পরিয়ে নতুন জীবন শুরু করতে যাবে তখনই হাজির পুলিশ, প্রশাসনের কর্তারা। ওডিশায় বেশ কিছু অঞ্চলে বিয়ের আগে বর-কনেকে করোনা পরীক্ষা করাতে হবে এই হল স্থানীয় প্রশাসনের নিয়ম। সেই অনুযায়ী গত ১৭ মে বর-কনের করোনা পরীক্ষা (Corona Test) করা হয়। কিন্তু সেই রিপোর্টের ফল আসতে আসতে বিয়ের দিন সকাল গড়িয়ে যায়। গানজামের সানাখেমুন্ডি ব্লকের দাসেপুর গ্রামের রাজেন্দ্র ডান্ডিয়া নামের সেই বরের করোনা রিপোর্ট পজেটিভ আসে।

সেই রিপোর্ট প্রশাসনের কাছেও পৌঁছে গিয়েছিল। রিপোর্টে দেখা যায় বরের কোভিড হয়েছে। সে সব না জেনেই বর দিব্যি বিয়ে করতে বসে গিয়েছিলেন। নিমন্ত্রিতরাও চলে এসেছিলেন সবাই। বিয়ের সব রীতিনীতি-উপাচার- নিয়ম পালনও চলছিল। এদিকে, বর ছিল করোনা পজেটিভ। শেষ অবধি পুলিশ এসে বরকে বিয়েবাড়ি থেকে আইসোলেশনে পাঠিয়ে দেওয়ার ব্যবস্থা করে। বর করোনা থেকে সেরে উঠলে, এক মাস পর নতুন করে বিয়ের দিন ঠিক করা হয়েছিল।