UP Girl Ends Life: প্রধানমন্ত্রীর উদ্দেশ্যে ১৮ পাতার সুইসাইড নোট লিখে আত্মঘাতী কিশোরী
প্রতীকী ছবি (Photo Credits: File Image)

সম্ভা, ১৯ আগস্ট: স্বাধীনতা দিবসের আগের দিন গুলি করে আত্মঘাতী হল বছর ১৬-র কিশোরী। মৃত্যুর পর তার ১৮ পাতার সুইসাইড নোট দেখে হতবাক কিশোরীর বাবা-মা, বন্ধুরা এমনকী, পুলিশও। অবাক হওয়ার অনেক বিষয় তখনও বাকি। সুইসাইড নোটটি প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে (PM Narendra Modi) উদ্দেশ্য করে লেখা। সুইসাইড নোটে দূষণ, দূর্নীতি, গাছ কেটে ফেলার মতো বিষয়গুলিতে জোর দিয়েছে ওই কিশোরী। বুধবার কিশোরীর সুইসাইড নোটটি উদ্ধার হয়েছে। যেখানে সে লিখেছে, প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির সঙ্গে সবসময় দেখা করার ইচ্ছা ছিল তাঁর। দেখা হলে উল্লেখিত সমস্যা গুলি নিয়েই আলোচনা করত তাঁর সঙ্গে।

সুইসাইড নোটে প্রধানমন্ত্রীর কাছে তার আবেদন, জনসংখ্যা নিয়ন্ত্রণের চেষ্টা করুন। দীপাবলিতে বাজি পোড়ানো নিষিদ্ধ হোক। একইভাবে হোলিতে নিষিদ্ধ থাকুক রাসায়নিক রং। বয়স্কদের সমস্যা গুলি নিয়েও সে বেশ চিন্তিত। এই প্রসঙ্গে সে লিখেছে, “আমি এমন একটা জায়গায় আর বাস করতে চাই না, যেখানে ছেলেমেয়েরা তাদের বাবা-মাকে বৃদ্ধাবাসে পাঠিয়ে দেয়।” মেয়ের এই শেষ ইচ্ছে পূরণে তৎপর গোটা পরিবার। তাই প্রধানমন্ত্রীর কাছে যাতে মেয়ের লেখা নোট পৌঁছায় তারজন্য ইতিমধ্যেই প্রক্রিয়া শুরু করেছে কিশোরীর বাড়ির লোকজন। চিঠি যাতে প্রধানমন্ত্রীর হাতে শেষপর্যন্ত পৌঁছায় সেজন্য প্রশাসনের কর্তাব্যক্তিদের কাছেও আবেদন রেখেছে মৃত কিশোরীর পরিবার। আরও পড়ুন-Coronavirus Cases In India: ১ দিনে সংক্রামিত ৬৪ হাজার ৫৩১ জন, ভারতে মোট করোনা আক্রান্ত ২৭.৬৭ লাখ ছাড়িয়ে গেল

মৃত কিশোরীর বাবা পেশায় কৃষক। তিনি বলেন, “এই সুইসাইড নোটটি আমরা মেয়ের শেষ ইচ্ছা। আমরা চাই এই চিঠি যেন অবশ্যই প্রধানমন্ত্রীর কাছে পৌঁছায়।” ওই কিশোরীর বাবরালার এক বেসরকারি স্কুলের পড়ুয়া। এই প্রসঙ্গে গুন্নাউরের এসএইচও দেবেন্দ্র কুমার বলেন, “১৪ আগস্ট রাতে গুলিতে আত্মঘাতী হয় ওই কিশোরী। রিভলবারটি পুলিশ উদ্ধার করেছে। দেহ ময়নাতদন্তের জন্য পাঠানো হয়েছে। একটি অভিযোগও দায়ের হয়েছে। বুধবার মৃত কিশোরীর বাড়িতেই তার নোটবুক থেকে ১৮ পাতার একটি সুইসাইড নোট উদ্ধার হয়েছে। তার অভিভাবকরা জানিয়েছেন, মানসিক সমস্যার জন্য মেয়ের চিকিৎসা চলছিল।”