Haryana Assembly Session Begins Today: কোভিড প্রোটোকল মেনে বুধবার শুরু হরিয়ানা বিধানসভার বর্ষাকালীন অধিবেশন, থাকছেন না করোনা আক্রান্ত মুখ্যমন্ত্রী মনোহরলাল খট্টর
হরিয়ানার মুখ্যমন্ত্রী মনোহর লাল খট্টর (Photo Credits: IANS)

চণ্ডীগড়, ২৬ আগস্ট:  কড়া সতর্কতার মধ্যে আজ বুধবার ৬ আগস্ট হরিয়ানা বিধানসভার বর্ষাকালীন অধিবেশন (Haryana Assembly Monsoon Session) শুরু হচ্ছে। করোনাভাইরাস পজিটিভ হওয়ায় অধিবেশনে থাকছেন না মুখ্যমন্ত্রী মনোহরলাল খট্টর। তবে মুখ্যমন্ত্রী ছাড়াও করোনা আক্রান্তের তালিকায় রয়েছেন বিধানসভার অধ্যক্ষ জ্ঞান চাঁদ গুপ্তা ও পরিবহনমন্ত্রী মুল চাঁদ শর্মা। স্বভাবতই প্রোটোকল মেনে অধ্যক্ষও থাকছেন না অধিবেশন। তাঁর অবর্তমানে ডেপুটি স্পিকার রণবীর গাঙ্গওয়া নিয়ম মেনে অধিবেশন পরিচালনা করবেন। হরিয়ানাতে হু হু করে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ ছড়াচ্ছে। করোনা আক্রান্ত অন্যান্য রাজনৈতিক নেতাদের তালিকায় রয়েছেন বিজেপি বিধায়ক লক্ষণ নাপা, রাম কুমার কাশ্যপ ও অসীম গোয়েল প্রমুখ। আজ থেকেই হরিয়ানা বিধানসভার বর্ষাকালীন অধিবেশন শুরু হচ্ছে। আরও পড়ুন-Kim Yo-jong: কিম-জং-উন কি মৃত? উত্তর কোরিয়ার শাসনভারের রাশ এখন কিম-ইয়ো-জংয়ের হাতে, বললেন দক্ষিণ কোরিয়ার প্রতিরক্ষামন্ত্রী

এদিকে মহামারীর খাঁড়া ঝুলছে দেশের উপরে। হু হু করে ছড়াচ্ছে সংক্রমণ। এই সময় একটু বেখেয়াল হলেও বিপদ বাড়বে। তাই বিধানসবার অধিবেশনের আগে মুক্যমন্ত্রী উপমুখ্যমন্ত্রী, অন্যান্য, অধ্যক্ষ, বিভিন্ন রাজনৈতিক নেতাদের করোনাভাইরাস টেস্ট বাধ্যতামূলক করা হয়। জানানো হয়, টেস্ট রিপোর্ট নেগেটিভ এলেই একমাত্র বিধানসভা ভবনে প্রবেশের অনুমতি মিলবে। সেই রিপোর্টের কারমেই আজকের বর্ষাকালীন অধিবেশনের প্রথম দিনে বিধানসভায় থাকছেন না মুখ্যমন্ত্রী মনোহরলাল খট্টর ও স্পিকার জ্ঞান চাঁদ গুপ্তা-সহ বেশ কয়েকজন। ইতিমধ্যেই বিধানসভা ভবনের ৯০ জন সদস্যের বসার আয়োজনও পরিবর্তিত হয়েছে। যাতে সামাজাকি দূরত্ব বজায় রাখা যায়।

বুধবার থেকে শুরু হরিয়ানা বিধানসভার বর্ষাকালীন অধিবেশন

চলতি বছরের ফেব্রুয়ারি-মার্চ মাসে বিধানসভায় বাজেট অধিবেশন হয়েছিল। তারপর থেকে বন্ধই ছিল হরিয়ানা বিধানসভা। মহামারীর কারমে এতদিন পর বর্ষাকালীন অধিবেশন হতে চলেছে হরিয়ানা বিধানসভায়। তবে করোনার কাঁটা রুখতে চলতি অধিবেশনে কোনও ভিজিটরকেই বিধানসভায় প্রবেশের অনুমতি দেওয়া হবে না। বিধানসভা ভবনের প্রবেশদ্বারে প্রত্যেক সদস্যকে জুতোর কভার দেওয়া হবে। এছাড়াও কিট, মাস্ক ও স্যানিটাইজার এমনকী গ্লাভসও থাকছে সেই তালিকায়। বিধানসবার সদস্যদের টেবিলেই মিলবে এসব জিনিস। এবং টেবিলে হাতে হাতে যেসব কাগজ ঘুরবে তার প্রতিটিই ভাল করে স্যানিটাইজ করতে হবে।