Arvind Kejriwal: ইডি হেফাজতে থেকে দ্বিতীয় সরকারি নির্দেশ জারি কেজরির, রাজধানীতে আরও জোরালো আপ-বিজেপির দ্বন্দ্ব
Photo Credits: ANI

নয়া দিল্লি, ২৬ মারচঃ ইডি হেফাজতে থেকেই রাজধানীর মুখ্যমন্ত্রীত্বে অনড় অরবিন্দ কেজরিওয়াল (Arvind Kejriwal)। দিল্লির আবগারি দুর্নীতি মামলায় ইডির হাতে গ্রেফতার হওয়ার পর থেকেই আপ আদমি পার্টির (Aam Aadmi Party) তরফে স্পষ্ট জানিয়ে দেওয়া হয়েছে, দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী কেজরিওয়ালই থাকবেন। নিজের দায়িত্ব পালনে ইডি হেফাজতে বসে মঙ্গলবার ফের সরকারি নির্দেশ জারি করলেন আপ আহ্বায়ক। মঙ্গলবার রাজধানীর স্বাস্থ্য বিভাগের জন্যে  সরকারি আদেশ পাঠিয়েছেন তিনি। জেল থেকে কেজরি দ্বিতীয় সরকারি নোটিস জারি করতেই চটেছে বিজেপি (BJP)। মুখ্যমন্ত্রীর পদ থেকে অরবিন্দের ইস্তফার দাবিতে পথে নেমেছে ভাজপার কর্মী সমর্থকেরা।

মঙ্গলবার দিল্লির স্বাস্থ্যমন্ত্রী সৌরভ ভরদ্বাজ জানান, মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়াল শহরের স্বাস্থ্য বিভাগের বিষয়ে ইডি হেফাজত থেকে তাঁর দ্বিতীয় আদেশ জারি করেছেন। এর আগে ২৪ মার্চ গ্রেফতারির পর ইডি হেফাজত থেকে প্রথম সরকারি নির্দেশ জারি করেছিলেন আপ সুপ্রিমো। দিল্লির জল দফতর বিভাগের জন্যে ওই নির্দেশিকা পাঠিয়েছিলেন জেলবন্দি মুখ্যমন্ত্রী (Arvind Kejriwal)। জেলে বসে সরকারি কার্যকলাপ পর্যালোচনা, নির্দেশ জারি করাকে আইন বিরুদ্ধ বলে দাবি করে কেজরির পদত্যাগের ডাক দিয়েছে বিজেপি।

অন্যদিকে মুখ্যমন্ত্রীর গ্রেফতারির প্রতিবাদে আজ মঙ্গলবার প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর (Narendra Modi) বাসভবনের বাইরে বিক্ষোভ কর্মসূচির ডাক দিয়েছে আম আদমি পার্টি (AAP)। এছাড়া ৩১ মার্চ রয়েছে ইন্ডিয়া জোটের 'মহা সমাবেশ'। দিল্লির রামলীলা ময়দানে জড়ো হবে ইন্ডিয়া। নির্বাচনের মুখে বিরোধীদের নিশ্চিহ্ন করার লক্ষ্যে মোদী সরকারের একের পর এক অসাংবিধানিক পদক্ষেপের বিরুদ্ধে এই প্রতিবাদ সভার আয়োজন করা হয়েছে।

তবে জেলে থেকেও প্রশাসনিক প্রধান হওয়ার কোন বাধা নেই থাকে না। কারণ জনপ্রতিনিধি আইন অনুযায়ী, কোন নির্বাচিত জনপ্রতিনিধি কোন অপরাধে দোষী সাব্যস্ত হলে তাঁর পদ খারিজ হয়। কিন্তু কেজরিওয়ালের বিরুদ্ধে দুর্নীতির অভিযোগ উঠেছে, তবে তিনি দোষী সব্যস্ত হননি। তাই এই মুহূর্তে আপ সুপ্রিমোর দিল্লির মুখ্যমন্ত্রীত্ব চালিয়ে যেতে কোন বাধা নেই।