Maharashtra: ৬ সন্তানকে কুয়োয় ছুঁড়ে ফেলে নিজেও ঝাঁপ দিল মা, সন্তানরা মারা গেলেও বাঁচলেন মহিলা
Crime Scene. (Photo Credits: Twitter)

রায়গড় (মহারাষ্ট্র), ৩১ মে: মহারাষ্ট্রের (Maharashtra) মাহাদ তালুকার খারাভালি গ্রামে মর্মান্তিক দুর্ঘটনা। মুম্বই থেকে ১০০ কিলোমিটারের দূরের রায়গড় জেলার এই গ্রামের এক মা তার ৬ সন্তানকে কুয়োয় ছুঁড়ে ফেলে, নিজেও ঝাঁপ দিল। কুয়োয় ডুবে মারা গেল সেই ৬ সন্তান। তাদের মধ্যে পাঁচজন কন্যা। ৬জনই নাবালক/নাবালিকা। কুয়োর জলে ডুবে যাওয়া মৃতদের বয়স ১৮ মাস থেকে ১০ বছরের মধ্যে। তবে মহিলাকে কোনওরকমে জীবিত অবস্থায় বের করে আনা সম্ভব হয়।

শ্বশ্বরবাড়ির কোনও সদস্যের হাতে মার খাওয়ার পর বছর ৩০-এর সেই মহিলা রাগ দেখিয়ে তার ৬ সন্তানকে এক জায়গায় নিয়ে আসে। তারপর রাগ দেখিয়ে বলে, এখানে থাকার থেকে তোরা সবাই জলে চলে গেলে শান্তি মিলবে। এরপর একে একে ৬ সন্তানকে সে কুয়োয় ফেলে দেয়। তারপর নিজেও ঝাঁপ দেয়। গ্রামের লোকেরা সবাইকে উদ্ধার করতে চেষ্টা করে। সন্তানদের বাঁচানো সম্ভব না হলেও তাদের মা-কে উদ্ধার করা হয়েছে। মৃতদের মধ্যে সবচেয়ে ছোটজনের বয়স দেড় বছর। আর সবচেয়ে বড়জনের ১০ বছর। আরও পড়ুন- সিধু মুসওয়ালার খুনের ছক দিল্লির তিহাড়ে? চূড়ান্ত গোপণীয়তায় জেলে তল্লাশি পুলিশের

দেখুুন টুইট

মর্মান্তিক এই ঘটনায় এলাকায় চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে। মহিলা মানসিক ভারসাম্য হারিয়েছে। পুলিশ জানায়, কুয়ো থেকে ৬ জনের দেহ উদ্ধার হয়েছে। কী করে এমন ঘটনা ঘটল তা তদন্ত করা হচ্ছে। মহিলাকে পরিবারের কোন সদস্য গায়ে হাত তুলেছে তাও খোঁজ নিচ্ছে পুলিশ।