ATM: ATM আসলে কী, এর ব্যবহারে কী কী করবেন ও কী কী করবেন না,  জানুন এই প্রতিবেদনে
এটিএম (File Photo)

নতুন দিল্লি, ১৫ অক্টোবর: অটোমেটেড টেলার মেশিন ATM নামেই বিশেষ পরিচিত। খুব সহজে কোনওরকম পরিশ্রম ছাড়াই ব্যাংক অ্যাকাউন্ট থেকে নগদ অর্থ পেতে গ্রাহককে দারুণভাবে সহযোগিতা করে এই ATM। ক্রেডিট কার্ড ও ডেবিট কার্ড পকেটে থাকলে যে কেউ এই ATM থেকে সহজেই ও নিরাপদে টাকা তুলতে পারবেন। ব্যাংকের কোনওরকম প্রতিনিধি ছাড়াই গ্রাহক এই ATM-এর সাহায্যে নিজের অ্যাকাউন্ট থেকে টাকা তুলতে পারবেন। মূলত প্রাথমিক লেনদেনের প্রক্রিয়া খুব সহজেই সম্পন্ন হবে ATM-এর মাধ্যমে। নগদ অর্থ সংগ্রহ, টাকা জমা করা। এক অ্যাকাউন্ট থেকে অন্য অ্যাকাউন্টে টাকা স্থানান্তর করা, বিল পেমেন্ট, যাবতীয় কাজ খুবসহজেই করে ফলে ATM। আরও পড়ুন-Coronavirus Cases In India: ভারতে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ছাড়ালো ৭৩ লাখের গণ্ডী, মৃত্যু মিছিলে শামিল ১ লাখ ১১ হাজার ২৬৬ জন

যে ব্যাংকের গ্রাহক সেই ব্যাংকের ATM থেকে টাকা তুললে তোলা বাবাদ ফি তেমন কাটে না বললেই চলে। ATM অন্য হলে এক্ষেত্রে একটা চার্জ কাটা হয়। এই ATM কার্ডের আকৃতি 85.60 mm × 53.98 mm যেমনটা অন্যান্য ক্রেডিট, ডেবিট বা অন্যান্য পেমেন্ট কার্ডের ক্ষেত্রে হয়ে থাকে। বিপত্তি এড়াতে রিজার্ভ ব্যাংকের নির্দেশ মেনে সমস্ত ব্যাংকের তরফেই গ্রাহকদের ডেবিট কার্ড থেকে ম্যাগনেটিক স্ট্রিপ সরিয়ে EMP চিপ জুড়ে দেওয়া হয়েছে।

কী করে ATM থেকে টাকা তুলতে হয়?

  • ATM-এ একবার কার্ড ইনসার্ট হয়ে গেলেই লেনদেনের প্রক্রিয়া শুরু হয়ে যায়।
  • এরপর আপনার পিন টাইপ করুন। সাধারণত এই নম্বর ৪ সংখ্যার হয়, তবে কখনও সখনও তা বেড়ে ৬ সংখ্যা পর্যন্ত হতে পারে।
  • এবার কী ধরনের লেনদেন করবেন তা বেছে নিন। যেমন সেভিংস নাকি কারেন্ট অ্যাকাউন্ট থেকে টাকা তুলবেন তা ঠিক করে নিন।
  • কত টাকা তুলবেন তা ঠিক করে টাইপ করুন।
  • টাকা তোলার পর প্রিন্টেড রশিদ চান কি না তা টাইপ করুন।
  • এই প্রক্রিয়া সম্পূর্ণ হলেই টাকা হাতে পেয়ে যাবেন।
  • লেনদেন সম্পন্ন হওয়ার পর মেশিন নিজে থেকেই কার্ড রিমুভের অপশন দেবে, তখন কার্ডটি নিয়ে নিন।

ATM ব্যবহারের সময় কী কী করবেন

  • একা ATM ব্যবহার করুন, তাতে গোপনীয়তা বজায় থাকে।
  • পিন নম্বর মনে করে ATM-এ তা সঠিকভাবে টাইপ করুন।
  • ATM থেকে টাকা সংগ্রহ করার পর অবশ্যই মনে করে কার্ডটি নিয়ে নিন।
  • টাকা তোলার পর দেখবেন মেশিন পুনরায় ওয়েলকাম মেসেজ দেখাচ্ছে কি না।
  • লেনদেন সম্পন্ন হওয়ার পর সযত্নে ATM কার্ডটি রেখে দিন।
  • ব্যবহারকারীরা অবশ্যই নিজেদের মোবাইল নম্বরটি ব্যাংকের নথিভুক্ত করান। যাতে লেনদেন সম্পন্ন হওয়ার মেসেজ মোবাইলে চলে আসে।
  • কোনওভাবে ATM কার্ডটি হারিয়ে ফেললে যত তাড়াতাড়ি সম্ভব ব্যাংকে পোন করুন। এবং কার্ডটি ব্লক করার আবেদন জমা করুন।
  • কোনও ATM-এ প্রবেশের পর দেখুন মেশিনের সঙ্গে কোনও সন্দেহজনক ডিভাইস যুক্ত করা আছে কি না। এমন কিছু থাকলে সতর্ক হোন। এমনকী, কোনও ব্যক্তি অযথা আপনার সঙ্গে গল্প করতে চাইছেন কি না, সেদিকেও খেয়াল রাখুন।
  • সময় করে নিয়মিত ব্যাংকের অ্যাকাউন্ট স্টেটমেন্টে চোখ বুলিয়ে নিন। লেনদেন সংক্রান্ত মেসেজেও নজর রাখুন।

ATM ব্যবহারের সময় কী কী করবেন না

  • নিজের ATM কার্ডটি কখনওই কাউকে দেবেন না। ভুলেও পিন নম্বর অন্যকে দেবেন না।
  • কার্ডের গায়ে বা ওয়ালেটে পিন নম্বর লিখবেন না। একই সঙ্গে মোবাইল ফোনেও নয় যা সহজেই অন্যের দৃষ্টি আকর্ষণ করতে পারে।
  • ATM থেকে টাকা তোলার সময় কাউকেই ভিতরে আসতে দেবেন না।
  • নিজে ছাড়া ব্যাংকের কোনও কর্মী বা অন্য কোনও দ্বিতীয় ব্যক্তিকে পিন নম্বর জানাবেন না।
  • টাকা লেনদেনের সময় অপরিচিত ব্যক্তির সাহায্য নেবেন না। চেনেন না এমন কাউকে ATM কার্ডটি দেবেন না।
  • টেলিফোন নম্বর বা জন্ম তারিখের মতো সহজেই অনুমান করা যায় এমন সংখ্যা পিন হিসেবে ব্যবহার করবেন না।