Jal Jeevan Mission: গ্রাম বাংলার মাত্র ২.২ লাখ পরিবারে পানীয় জলের সংযোগ, জল জীবন মিশনে হতাশাজনক পারফরম্যান্স রাজ্যের
Tap Water. Representational Image. (Photo Credits: File Image)

নতুন দিল্লি, ৩০ অক্টোবর: 'জল জীবন মিশন' (Jal Jeevan Mission) বাস্তবায়নে হতাশাজনক পারফরম্যান্স দেখিয়েছে পশ্চিমবঙ্গ (West Bengal)। আজ একথা বলেছে কেন্দ্রীয় সরকার। তাদের দাবি, গ্রাম বাংলার মাত্র ২.২ লাখ পরিবারে জলের সংযোগ দেওয়া হয়েছে। জলশক্তি মন্ত্রক (Jal Shakti Ministry) উদ্বেগ প্রকাশ করে জানিয়েছে, রাজ্যের ১০টি জেলায় জাপানি এনসেফালাইটিস এবং অ্যাকিউট এনসেফালাইটিসের প্রকোপ রয়েছে। প্রভাব পড়েছে ৪২.৯৬ লক্ষ পরিবারেকে, এর মধ্যে মাত্র ২.৩৪ লক্ষ পরিবারে (৫.৪ শতাংশ) ট্যাপ সংযোগ দেওয়া হয়েছে।

কেন্দ্রীয় সরকার বলেছে, রাজ্যে ১ হাজার ৫৬৬ আর্সেনিক এবং ফ্লোরাইড প্রভাবিত আবাস রয়েছে। যাদের ২০২০ সালের ডিসেম্বরের মধ্যে পাইপলাইনের মাধ্য়মে জলের সংযোগ দেওয়া উচিত। জলশক্তি মন্ত্রক পশ্চিমবঙ্গে জল জীবন মিশনের পরিকল্পনা ও বাস্তবায়ন সম্পর্কিত একটি পর্যালোচনা সভা করেছে, সেই সময়ে রাজ্যের আধিকারিকরা জাতীয় জল জীবন মিশন দলের সামনে এই কর্মসূচির অগ্রগতি সম্পর্কে তথ্য দেন।আরও পড়ুন: Bengaluru: ২ মিটার লম্বা চালান, ট্রাফিক বিধি লঙ্ঘনে ৪২ হাজার ৫০০ টাকা জরিমানা বাইক আরোহীর

২০২৪ সালের মধ্যে ১.৬৩ কোটি গ্রামীণ পরিবারকে নলবাহিত জলের সংযোগ দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে পশ্চিমবঙ্গ সরকার। জলশক্তি মন্ত্রক এক বিবৃতিতে বলছে, "জলশক্তি মন্ত্রক পশ্চিমবঙ্গে জল জীবন মিশন বাস্তবায়নের পর্যালোচনা করেছে। তাতে রাজ্যের হতাশাজনক পারফরম্যান্স উঠে এসেছে। ২০২০-২১ সালের মধ্যে এ পর্যন্ত ৫৫.৫৮ লক্ষ লক্ষ্যমাত্রার বদলে মাত্র ২.২০ লক্ষ নলবাহিত জলের সংযোগ দেওয়া হয়েছে।" বিবৃতিতে আরও বলা হয়েছে, "পর্যালোচনা সভায় পর্যবেক্ষণ করা হয়েছে যে রাজ্যের ৪১,৩৫৭ টি গ্রামের মধ্যে ২২,৩১৯ টি গ্রামে পাবলিক ওয়াটার সাপ্লাই রয়েছে। যেখানে পুনর্নির্মাণের মাধ্যমে অবশিষ্ট পরিবারগুলিতে প্রায় ১ কোটি ট্যাপ কলের সংযোগ দেওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে।"

পর্যালোচনা সভায় জলশক্তি মন্ত্রক লক্ষ্য অর্জনের জন্য কাজের গতি বাড়ানোর জন্য রাজ্যকে অনুরোধ করেছে। এছাড়াও মন্ত্রকের রাজ্যকে অনুরোধ করেছে যে ২২ অক্টোবর শুরু হওয়া বিশেষ ১০০ দিনের অভিযানের অংশ হিসাবে সমস্ত অঙ্গনওয়াড়ি কেন্দ্র, আশ্রমশালা এবং স্কুলে নলবাহিত জল সরবরাহ করা উচিত। যাতে পানীয়, হাত ধোওয়া, টয়লেট এবং মিড-ডে মিলের খাবার রান্না করার জন্য সেই জল ব্যবহার করা যায়। জল জীবন মিশন মোদি সরকারের একটি প্রধান উদ্যোগ। ২০২৪ সালের মধ্যে সমস্ত গ্রামীণ পরিবারকে নলবাহিত পানীয় জল সরবরাহ করা এই মিশনের উদ্দেশ্য। সমস্ত রাজ্যের মধ্যে গোয়া এখন পর্যন্ত সমস্ত গ্রামীণ পরিবারে নলবাহিত পানীয় জলের ব্যবস্থা করেছে।