Azamgarh Shocker: স্কুল ছাত্রীকে গাড়িতে তুলে 'গণধর্ষণে'র পর রাস্তায় ফেলে দেওয়া কাণ্ডে গ্রেফতার দুই
ধর্ষণ। Representational Image

আজমগড়, ২৪ সেপ্টেম্বর: Azamgarh Rape:  উত্তরপ্রদেশের আজমগড় জেলায় স্কুল ছাত্রীকে গণধর্ষণ (Gang Rape)-র অভিযোগ। ধর্ষণের এই ঘটনা ধামাচাপা দিতে স্কুলের প্রিন্সিপাল ত্রীটিকে স্কুলে আসতে বারণ করে বলেও অভিযোগ। গত সোমবার ছাত্রীর অভিযোগের ভিত্তিতে শ্লীলতাহানির অভিযোগে দুজনকে গ্রেফতার করে পুলিশ। সংবাদমাধ্যমে প্রকাশ, গতকাল ২৩ সেপ্টেম্বর, সোমবার ছাত্রীটি স্কুল থেকে বাড়ি ফিরছিল। দুষ্কৃতীরা লুকিয়ে তার অপেক্ষায় ছিল। ছাত্রীকে জোর করে মুখে কাপড় বেঁধে SUV-তে তুলে নিয়ে যায় দুষ্কৃতীরা।

গাড়িতে ধর্ষণের পর তাকে রাস্তায় ছুঁড়ে ফেলা দেওয়া হয় বলে অভিযোগ। পুলিশ পুরো ঘটনার তদন্ত করছে। তার বিরুদ্ধে ওঠা যাবতীয় অভিযোগ অস্বীকার করেছেন স্কুলের প্রিন্সিপাল। তবে ঘটনাটা মিটে না যাওয়া পর্যন্ত ছাত্রীটিকে স্কুলে না আসার পরামর্শ দিয়েছিলেন বলে মেনে নেন প্রিন্সিপাল। আরও পড়ুন-বারবার ছ'বার ফিফার বর্ষসেরা লিওনেল মেসি, অনুষ্ঠানে এলেন না রোনাল্ডো- এক নজরে The Best-রা

স্থানীয় মানুষরা সাংবাদিকদের জানান, গাড়িতে ধর্ষণ করে ছাত্রীটিকে ফাঁকা জায়গায় ফেলে দেওয়ার পর সে কোনওরকমে এক দোকানের সামনে যায়। দোকানটা ছিল মদ বিক্রির। সেই মদের দোকানেই অ্যালার্ম টিপে সে স্থানীয় মানুষদের ডাকে। ছাত্রীটিকে রক্তাক্ত ও একেবারে অসুস্থ অবস্থায় উদ্ধার করা হয়। এরপরই নাকি স্কুলের প্রিন্সিপাল পুরো ঘটনা ধামাচাপা দেওয়ার চেষ্টা করে।