Nikhil Jain: স্বামী-স্ত্রীর মতো থাকতেন, রেজিস্ট্রি করতে চাইলেও নুসরত এড়িয়ে যান, দাবি নিখিলের
নিখিলের সঙ্গে নুসরত, ফাইল ছবি

কলকাতা, ১০ জুন: নুসরত জাহানের বক্তব্যের পর এবার পালটা নিজে বক্তব্য প্রকাশ করলেন অভিনেত্রীর 'স্বামী' নিখিল জৈন (Nikhil Jain) । নিজের অফিসিয়াল স্টেটমেন্টে নিখিল জৈন বলেন, 'আমরা স্বামী স্ত্রী হিসেবে বসবাস করতাম । সমাজের কাছে নিজেদের বিবাহিত দম্পতি বলে জাহির করতাম । একজন স্বামী হিসেবে নুসরতের (Nusrat Jahan)  প্রতি সমস্ত দায়িত্ব আমি পালন করেছি, নিজের সব সময় নুসরতকে দিয়েছি । আমার বন্ধু, বান্ধব এবং পরিবারের প্রত্যেকে জানেন যে নুসরতের জন্য আমি কী করেছি । তা সত্ত্বেও খুব কম সময়ের মধ্যে আমার প্রতি নুসরতের দৃষ্টিভঙ্গি সম্পূর্ণ বদলে যায় ।'

 

নিখিলের কথায়, ২০২০ সালের অগাস্ট মাস থেকে তাঁর প্রতি নুসরতের ব্যবহার বদলে যেতে শুরু করে। ওই সময় নুসরত একটি ছবির শ্যুটিং করছিলেন বলে জানান নিখিল। কী কারণে নিখিলের প্রতি নুসরতের ব্যবহার পালটে যেতে শুরু করে, তা নুসরতই ভাল  জানেন বলেও মন্তব্য করেন নিখিল।

আরও পড়ুন:  Kunal Ghosh: নুসরতের ব্যক্তিগত বিষয়ের সঙ্গে দলের সম্পর্ক নেই, বিজেপিকে স্পষ্ট জানালেন কুণাল ঘোষ

পাশাপাশি বিয়ের পর থেকে অনেকবার রেজিস্ট্রেশনের জন্য তিনি নুসরতকে বলেন কিন্তু অভিনেত্রী বার বারই তা এড়িয়ে যান বলে দাবি করেন নিখিল।  ২০২০ সালের নভেম্বর মাসে নিখিলের ফ্ল্যাট ছেড়ে ব্যাগ গুছিয়ে চলে যান নুসরত। প্রয়োজনীয় কাগজপত্র থেকে সমস্ত জিনিষ নুসরত নিজের সঙ্গে তাঁর বালিগঞ্জের ফ্ল্যাটে নিয়ে যান। এরপর থেকে তাঁরা আর কখনও স্বামী, স্ত্রী (Wife) হিসেবে একসঙ্গে থাকতেন না বলে জানান নিখিল।

এরপর বিভিন্ন সময়ে নুসরতের সম্পর্কে বিভিন্ন খবর সংবাদমাধ্যমে দেখতেন, তখন তাঁর ভাল লাগত না। ২০২১ সালের ৮ মার্চ আলিপুর আদালতে সিভিল স্যুট ফাইল করেন বলে জানান নিখিল জৈন। এরপর থেকেই তাঁর এবং নুসরতের বিষয়টি আদালতের বিচারাধীন বলে মন্তব্য করেন নিখিল জৈন।