Maharashtra Assembly Polls 2019: সকাল সকাল ভোট দিলেন আমির খান, কিরণ রাও, জেনেলিয়া দেশমুখরা; লাইনে সেলেবদের দেখে উচ্ছ্বসিত আমজনতা
Aamir Khan, Kiran Rao, Lara Dutta, Ritesih and Genelia Deshmukh (Photo Credits: Yogen Shah, Twitter)

মুম্বই, ২১ অক্টোবর: ভোট (Vote) দেওয়া দায়িত্বশীল নাগরিকের কর্তব্য। আজ সোমবার মহারাষ্ট্রে চলছে বিধানসভা নির্বাচন (Assembly Election)। সকাল থেকেই লম্বা লাইন ভোটদাতাদের (Voter)। নিজের ভোটাধিকার নিজে প্রয়োগ করতে উদ্যোগী মহারাষ্ট্রবাসী। শুধু সাধারণ জনতাই নয়, নিজেদের ভোটাধিকার নিজেরাই প্রয়োগ করতে উদ্যোগী বলি সেলেবরাও (Celebrety)। নিজেদের গণতান্ত্রিক অধিকার প্রয়োগ করতে ভোটার লাইনে দাঁড়ালেন মুম্বই তথা মহারাষ্ট্রবাসী সেলেবরা। সকাল সকাল ভোট দিলেন আমির খান (Amir Khan), কিরণ রাও (Kiran Rao), জেনেলিয়া দেশমুখরা (Genelia Deshmukh)।

মহারাষ্ট্র বিধানসভায় রয়েছেন ২৮৮ জন সদস্য (Member)। দেবেন্দ্র ফড়নবিস সরকারের মেয়াদ শেষ হচ্ছে ৯ নভেম্বর। তার আগেই চলতি মাসের ২৪ অক্টোবর ভোটের ফলাফল (Result) প্রকাশিত হয়ে যাবে। এর আগে ২০১৪ সালে বিধানসভা নির্বাচন হয়েছিল মহারাষ্ট্রে। নিরঙ্কুশ সংখ্যা গরিষ্ঠতা নিয়ে সরকার গড়েছিল শিব সেনা (Shiv Sena) এবং বিজেপি (BJP)। মুখ্যমন্ত্রী হন দেবেন্দ্র ফড়নবিস (Devendra Fadnavis)। এবারের নির্বাচন নিয়েও উদ্বেগ টানটান মহারাষ্ট্রবাসীর মধ্যে। সকাল সকাল ভোট দিতে লাইনে দাঁড়াতে দেখা গিয়েছে- কিরণ রাও, আমির খান, লারা দত্ত সহ তাঁদের পরিবারকে। আরও পড়ুন: টাক নিয়ে আর নয় 'টেকো'-'বালা ' চুলোচুলি, ট্রেলারই আলাদা করল জল- দুধ

Kiran Rao (Photo Credits: Yogen Shah)

Lara Dutta With Husband (Photo Credits: Yogen Shah)

Aamir Khan (Photo Credits: Yogen Shah)

মহারাষ্ট্র ছাড়াও এদিন নির্বাচন রয়েছে হরিয়ানায় (Hariyana)। সকাল থেকেই চলছে ভোটগ্রহণ। দুই রাজ্যের ভোটারদের সর্বাত্মক ভোটদানের আবেদন জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি (Narendra Modi)। দুই রাজ্যে বিধানসভা নির্বাচন ছাড়াও ১৮টি রাজ্যের ৫৩টি বিধানসভা ও ২টি লোকসভা আসনে উপ-নির্বাচনের (Bypolls) ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হচ্ছে আজ। ভোটগ্রহণ পর্ব শুরুর পর প্রধানমন্ত্রী (PM) টুইটে লেখেন, "হরিয়ানা ও মহারাষ্ট্র বিধানসভায় নির্বাচন হচ্ছে। ভারতের বিভিন্ন স্থানেও উপ-নির্বাচন হচ্ছে। আমি এই রাজ্যগুলি ভোটারদের প্রতি রেকর্ড সংখ্যায় ভোটদানের আহ্বান জানাচ্ছি এবং বিপুলসংখ্যক ভোট দিয়ে তাঁরা গণতন্ত্রের উৎসবকে সমৃদ্ধ করবেন এই ব্যাপারে আমি আশাবাদী।"