Rashmika Mandanna Deep Fake Video: ডিপ ফেকে 'ডিপ ট্রাবল'এর সিঁদুরে মেঘ দেখছে মোদী সরকার, রশ্মিকা কাণ্ডে সোশ্যাল সাইটগুলিকে কড়া নির্দেশিকা কেন্দ্রের
Rashmika Mandanna (Photo Credits:

আল্লু অর্জুনের 'পুষ্পা' খ্যাত জনপ্রিয় নায়িকা রশ্মিকা মন্দনা (Rashmika Mandanna)-র ডিপ ফেক ভিডিয়ো ভাইরাল হওয়ার পর থেকেই দেশজুড়ে তুমুল বিতর্ক। লক্ষ লক্ষ নেটিজেনদের মত খোদ অমিতাভ বচ্চনও রশ্মিকার ডিপ ফেক ভিডিয়ো নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করেন। রাশ্মিকার ডিপ ফেক ভিডিয়ো প্রমাণ করে দিয়েছে, আগামী দিনে আমাদের সবার ওপর বড় বিপদ অপেক্ষা করছে। আর ডিপ ফেক ভিডিয়ো নিয়ে সোশ্যাল নেটওয়ার্কিং প্ল্যাটফর্মগুলিতে সতর্ক থাকার নির্দেশ দিল কেন্দ্রীয় সরকার।

ডিপ ফেক ভিডিয়ো নিয়ে ফেসবুক, টুইটার-এর মত প্ল্যাটফর্মদের সতর্কবার্তা পাঠিয়েছে কেন্দ্র। এমনটা শোনা যাচ্ছে। এই ধরনের ঘটনায় সাত দিনের মধ্যে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। আরও পড়ুন-রশ্মিকা পর এবার ক্যাটরিনা, ডিপফেকের শিকার 'টাইগার থ্রি' নায়িকা

দেখুন সেই ভিডিয়ো

রবিবার রাত থেকেই সোশ্যাল মিডিয়ায় অভিনেত্রী রশ্মিকা মন্দনার (Rashmika Mandanna) একটি আপত্তিকর ভিডিয়ো ঘুরছে। যেখানে অভিনেত্রীকে একটি কালো রঙের পোশাকে লিফটে প্রবেশ করতে দেখা গিয়েছে। সেই পোশাকে রশ্মিকার বক্ষবিভাজিকা বেজায় উন্মুক্ত। এই ধরনের পোশাকে আগে কখনও নায়িকাকে দেখেননি তাঁর অনুরাগীরা। তাই শুরু থেকেই ওই ভিডিয়োর সত্যতা নিয়ে প্রশ্ন তুলছিলেন ভক্তরা। তবে ভিডিয়োর ওই মহিলা আদতে রশ্মিকা (Rashmika Mandanna) নন। কারসাজি করে নায়িকার মুখ বসানো হয়েছে ভিডিয়োর ওই মহিলার মুখে। কৃত্রিম মেধা তথা আর্টিফিশিয়াল ইন্টেলিজেন্স ব্যবহার করে এই ধরেনের কাজ যে কী পরিমাণ সাংঘাতিক তা স্মরণ করালেন রশ্মিকা নিজেই।