Meiyang Chang Was Called 'Corona': 'করোনা' বলে আক্রমন গায়ক মেয়াঙ চ্যাঙকে, জবাবে কি বললেন জানেন?
গায়ক মেয়াঙ চ্যাঙ (Photo Credits: Instagram)

সারা বিশ্ব করোনাভাইরাসে (Coronavirus) ত্রস্ত। চিনে করোনার ধাক্কা সামলে স্বাভাবিক হচ্ছে পরিস্থিতি। ইতালি (Italy) মৃত্যুপুরী। গৃহবন্দি প্রায় গোটা পৃথিবী। ঘরে বসে সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার হচ্ছে ভুয়ো খবর, মিমস। আতঙ্ক বুকে নিয়ে হাসি রঙ্গে ভরা মিমস একটু হালকা করছে মন। হাসাহাসি, ঠাট্টার সঙ্গে মানুষ যেন ভুলে না যায় নিজের সতর্কতা তার আর্জিও করছেন সকলে।

কিন্তু এরই মাঝে উত্তর-পূর্ব কিংবা এদেশে বসবাস করা জন্মগত চিনা কিংবা জাপানিজদের আক্রমন করছে একদল মানুষ। যার শিকার হলেন গায়ক মেয়াঙ চ্যাঙও। মুম্বইবাসী ইন্ডিয়ান আইডল ৩-র প্রতিযোগী এবং সঞ্চালক গায়ক গেছিলেন জগিং করতে। সেখানে বাইকে চেপে দুটি ছেলে যাচ্ছিল, তারা তাঁকে 'করোনা' বলে ডাকে বলে দাবি করেন গায়ক। আরও পড়ুন, ভয়াবহ গতিতে ছুটছে কোভিড-১৯, দেশে আক্রান্তের সংখ্যা ৪১৫

 

View this post on Instagram

 

In times of crisis, some human beings devolve into the worst versions of themselves. Or may be that was them all along? . Thank you @mumbaigirl14 @timesofindia for taking this message far & wide, in light of the online & public #racism & discrimination against North-East Indians & the Indian-Chinese🙏🏼 And thank you everyone for your unstinting humanism & love since this article broke yesterday (or today, depending on which city you are in). I'm reading your messages and I'm so, so touched by your kind words. Let's stay united; in spirit & in philosophy. Now and always 🤗 . And to those stray trolls who are still spewing venom on my timeline; I say to you, as we would back in Bihar-Jharkhand: "भक साला, तुम तो हमारे प्यार के क़ाबिल भी नहीं हो बे! लेकिन, तुमको भी दीर्घायु भवः।" . Stay safe, stay healthy everyone ❤️

A post shared by Mister Chang (@meiyangchang) on

নিজের ইনস্টাগ্রামে এই ঘটনা শেয়ার করতেই ট্রোলড। তবে এতে তিনি একটুও রেগে না গিয়ে লেখেন- "সঙ্কটের সময়ে কিছু মানুষ নিজেদের খারাপ দিকগুলিতে নিয়োজিত করে। অথবা তারা এমনই ছিলেন।" তিনি আরও বলেন,"আমি আপনাদের বার্তাগুলি পড়ছি এবং আমি তাই আপনাদের মমতাময়ী কথা আমায় স্পর্শ করেছে। আমরা বরং ঐক্যবদ্ধ থাকি; চেতনা এবং দর্শনে। এখন এবং সর্বদা এবং যারা বিপথগামী ট্রোলগুলি এখনও আমার টাইমলাইনে বিষ ছড়িয়ে দিচ্ছে; আমি আপনাকে বলি, এভাবে আমরা যেমন বিহার-ঝাড়খন্ডে ফিরে আসব।"

বিদেশি দেশি মিলিয়ে সোমবার ভারতে করোনা আক্রান্তের (coronavirus positive) সংখ্যা পৌঁছেছে প্রায় ৪৫০-র কাছে। রবিবার থেকে সোমবার এই ৪৮ ঘণ্টায় ১৯ জনের শরীরে করোনাভাইরাসের জীবাণু মিলেছে। স্বাস্থ্যমন্ত্রকের তথ্য বলছে ইতিমধ্যেই করোনার গ্রাসে দেশে সাতজনের মৃত্যু হয়েছে। এখনও পর্যন্ত করোনাভাইরাসের হাত থেকে সুস্থ হয়ে বাড়িতে ফিরেছেন ২৩ জন। ভয়াবহ গতিতে দেশে আক্রান্তের সংখ্যা বাড়ছে। এখনও ২২টি রাজ্য ও কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলে আক্রান্তের সংক্যা মিলেছে। মহারাষ্টের অবস্থা সব থেকে খারাপ। সেখানে আক্রান্তের সংক্যা ৮৯। তালিকায় দ্বিতীয় কেরালা। তথ্যানুযায়ী অন্ধ্রপ্রদেশে আক্রান্তের সংখ্যা ৫। বিহারে দুজন আক্রান্তের মধ্যে গতকালই একজনে