#I Love My Cleavage, সেলেনার সমর্থনে বক্ষ বিভাজিকার ভিড়ে সোশ্যাল মিডিয়া, কী বলছে নেটিজেনরা?
সেলেনার সমর্থনে সোশ্যাল মিডিয়া ক্লিভেজ সেলফি(Photo Credit: Twitter)

প্যারিস, ২৬জুন: নিজেদের শারীরিক গঠন নিয়ে হেনস্তার মুখে পড়া মহিলার সংখ্যা গোটা বিশ্বে কম নেই। সুযোগ পেলেই পুরুষতান্ত্রিক সমাজ দাঁত নখ বের করে মহিলাদের শরীরি আক্রমণে মাতে। সেই আক্রমণ যে সবসময় হাত পা দিয়েই ঘটবে তা নয়, সোশ্যাল মিডিয়া থেকে শুরু করে সংবাদ মাধ্যম পথে ঘাটে যে কোনও জায়গায় হতে পারে। আজ কেউ ধর্ষিতা হলে ধর্ষকের দিকে আহুল তোলার মানুষের সংখ্যা খুবই কম, তখন সবার নজর গিয়ে পড়ে নির্যাতিতার পোশাকের উপরে, তাঁর আচার আচরণকেও কখনওসখনও দায়ী করা হয়। আরও পড়ুন-হায়দরাবাদের নিজামের রেখে যাওয়া সাড়ে তিন কোটি পাউন্ড নাকি পাকিস্তানের, কী বলছে ভারত?

ভি নেকের পোশাক পরে রাস্তায় বেরিয়ে ইভটিজারদের দ্বারা আক্রান্ত হলেন এক তরুণী। ঘটনাস্থল প্যারিস, আক্রান্ত তরুণী হলেন সেলেনা। নাহ তিনি ভয় পাননি, রীতিমতো বিরক্ত হয়েছেন। তাই বাড়িতে ফিরে একটু ধাতস্থ হওয়ার পর নিজেই সোশ্যাল মিডিয়ায় ক্লিভেজের ছবি প্রকাশ করে ইভটিজার ও তাদের পৃষ্ঠপোষকদের উদ্দেশে পাল্টা প্রতিবাদ ছুঁড়ে দিয়েছেন। সেলেনার পোস্টে লেখা #I Love My Cleavage। বলা বাহুল্য, প্যারিসের রাস্তায় নিজের পোষাক নিয়ে হেনস্তা হওয়ার পর মরিয়া হয়ে উঠেছেন ওই তরুণী। দিনের পর দিন আমাদের পারিপার্শ্বিক সমাজ যে তলানিতে গিয়ে ঠেকেছে তা প্রমাণ করে দিতে একা একাই প্রতিবাদ শুরু করেছে. সোশ্যাল মিডিয়ায় সেলেনার ক্লিভেজের ছবি ও প্রতিবাদি বার্তা পড়ে তাঁর সঙ্গে সহমত পোষণ করেছেন অনেকেই। নিগৃহীতার সমর্থনে উপচে পড়েছে ক্লিভেজের ছবিওয়ালা পোস্ট। নেটিজেনদের সমর্থনে প্রতিবাদের মাথা হতে চলেছে #I Love My Cleavage।

ভাইরাল সেলেনা এখন শুধু প্যারিস নয় গোটা বিশ্বের মহিলাদের প্রতিনিধি, তাঁকে সামনে রেখেই গলা মিলিয়েছে বিশ্বের নারী সমাজ। একটাই কথা #I Love My Cleavage, শুধু সমর্থন নয় তাঁরাও নিজেদের বক্ষ বিভাজিকার ছবি সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করে চলেছেন। তৈরি হয়েছে নতুন প্রিবাদের ট্রেন্ড #I Love My Cleavage