COVID-19 Vaccine Update: সপ্তাহ দুয়েকের মধ্যেই করোনাভাইরাস ভ্যাকসিনের উৎপাদন শুরু করবে রাশিয়া
প্রতীকী ছবি (Photo Credits: ANI)

মস্কো, ১৩ আগস্ট: ২ সপ্তাহের মধ্যেই কোভিড-১৯ ভ্যাকসিনের উৎপাদন শুরু করবে রাশিয়া (Russia)। একথাই জানালেন সেদেশের স্বাস্থ্যমন্ত্রী মিখাইল মুরাসকো। সংবাদ সংস্থা জিনহুয়া রিপোর্ট জানাচ্ছে, এখ সাংবাদিক সম্মেলনে মিখাইল মুরাসকো বলেন, “প্রথমে কোভিড-১৯ ভ্যাকসিনের য়ে উৎপাদন হবে তা আমাদের দেশের মানুষের প্রয়োজনীয়তাকেই পূরণ করবে। যখন ভ্যাকসিনের পরিমাণ যথেষ্ট হয়ে যাবে তখন অন্যান্য দেশকে তা অফার করতে পারে রাশিয়া। ভ্যাকসিন আদৌ কার্যকরী কি না তানিয়ে বিদেশি রাষ্ট্রগুলি ইতিমধ্যেই সন্দেহ প্রকাশ করেছে। রীতিমতো পড়াশোনা ও গবেষণার পরই এই ভ্যাকসিন তৈরি করা হয়েছে। এবং ভ্যাকসিনটি নিরাপদ কি না তার স্বপক্ষে যথেষ্ট পরিমাণে বৈজ্ঞানিক তথ্যও সরবরাহ করেছেন ভ্যাকসিনের আবিষ্কারক।”

মারণ ভাইরাস করোনাকে রুখতে বিশ্বের প্রথম ভ্যাকসিন এসে গেছে। মঙ্গলবার তা ঘোষণা করেন রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন। সরকারি আধিকারিকদের সঙ্গে এক অনলাইন বৈঠকেই পুতিন নভেল করোনাভাইরাসকে রুখে দেওয়ার এই ভ্যাকসিনের খবর দেন। এই ভ্যাকসিনের নামকরণ করা হয়েছে স্পুটনিক ভি। রাশিয়ান ডিরেক্ট ইনভেস্টমেন্ট ফান্ডের আওতায় এই স্পুটনিক ভি তৈরি করেছে সেখানকার গামালিয়া ন্যাশনাল সেন্টার অফ এপিডেমোলজি এবং মাইক্রোবায়োলজি। গামালিয়া ন্যাশনাল রিসার্চ সেন্টারের ডিরেক্টর আলেকজান্ডার গিন্টসবার্গ জানান, ডিসেম্বর থেকে জানুয়ারি, এই এক মাসে অন্ততপক্ষে ৫০ লক্ষ ভ্যাকসিন উৎপাদনের পরিকল্পনা নিয়েছে রাশিয়া। এই ভ্যাকসিন যাতে শিশুদের উপরে প্রয়োগের অনুমতি মেলে সেজন্য সেন্টারের তরফে প্রয়োজনীয় কাগজপত্রও তৈরি করা হচ্ছে। আরও পড়ুন-Punjab CM Captain Amarinder Singh: ডিজিটাল শিক্ষা, দ্বাদশ শ্রেণির পড়ুয়াদের হাতে স্মার্ট ফোন তুলে দিলেন পাঞ্জাবের মুখ্যমন্ত্রী ক্যাপ্টেন অমরিন্দর সিং

ভ্যাকসিন দেওয়ার ক্ষেত্রে শিশুদের সঙ্গে প্রাপ্তবয়স্কদের মধ্যে কোনও প্রকারভেদ থাকছে না। তবে ডোজের পরিমাণ কমতে পারে কিনা তারজন্য অতিরিক্ত পরীক্ষার প্রয়োজন রয়েছে। রাশিয়াতে এই মুহূর্তে মোট করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ৯ লক্ষ ২ হাজার ৭০১ জন। মৃত্যু মিছিলে শামিল ১৫ হাজার ২৬০ জন। সুস্থ হয়ে উঠেছেন ৭ লক্ষ ১০ হাজার ২৯৮ জন।