Narendra Modi Appeals Business Leaders to Invest: 'ভারতে বিনিয়োগের এটাই সেরা সময়', ব্যাঙ্ককে বললেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি
নরেন্দ্র মোদি (Photo Credits: ANI)

ব্যাঙ্কক (থাইল্যান্ড), ৩ নভেম্বর: রবিবার থাইল্যান্ডের (Thailand) ব্যাঙ্ককে (Bangkok) একটি অনুষ্ঠানে ভারতে বিনিয়োগের জন্য ব্যবসায়ী মহলের কাছে আবেদন জানালেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি (Prime Minister Narendra Modi)। তিনি বলেন, এটাই সবচেয়ে ভালো সময় ভারতে বিনিয়োগ করার। মোদি বলেন, "আজ ভারতে কিছুটা ইতিবাচক পরিবর্তন ঘটার ছবি আপনাদের দিতে আমি আগ্রহী। আমি পূর্ণ আত্মবিশ্বাসের এটা বলছি যে ভারতে আসার এটাই সেরা সময়।" অনুষ্ঠানে বিনিয়োগ টানতে ভারত সরকারের নেওয়া বিভিন্ন পদক্ষেপের কথাও তিনি তুলে ধরেন।

সম্প্রতি, বিশ্ব ব্যাঙ্ক (World Bank) 'ইজ অফ ডুয়িং বিজনেস' (Ease of Doing Business)-র তালিকা প্রকাশ করেছে। সেই তালিকায় কয়েক ধাপ উপরে উঠেছে ভারত। এই মুহূর্তে বিশ্বের ১৯০টি দেশের তালিকায় ভারত উঠে এসেছে ৬৩ নম্বরে। ২০১৮ সালে এই তালিকায় দেশের র‌্যাঙ্কিং ছিল ৭৭। বিশ্ব ব্যাঙ্কের সেই তালিকা তুলে ধরে প্রধানমন্ত্রী বলেন, "অন্য অনেক কিছু যখন পড়ছে তখন অনেক কিছু বাড়ছে। ভারতে ব্যবসা করা সহজ, জীবনযাপন সহজ। এফডিআই, বনাঞ্চল, পেটেন্টস, উৎপাদন বৃদ্ধি পাচ্ছে। অন্যদিকে কর, করের হার, লাল ফিতের ফাঁস, দুর্নীতি কমছে। দুর্নীতি শেষ হওয়ার পথে।" আরও পড়ুন:  Electric Car: আর ৩০ মিনিট লাগবে না; এই ব্যাটারিতে ১০ মিনিটেই চার্জ হয়ে যাবে আপনার বৈদ্যুতিন চারচাকা গাড়িটি

বক্তব্য রাখতে গিয়ে ভারত এবং থাইল্যান্ডের অটুট সাংস্কৃতিক যোগসূত্র রয়েছে বলে মোদি দাবি করেন। বলেন, "বাণিজ্য ও সংস্কৃতির মধ্যে ঐক্যবদ্ধ করার অন্তর্নিহিত ক্ষমতা রয়েছে। বিনিয়োগ এবং সহজ ব্যবসার জন্য ভারতে আসুন। উদ্ভাবন এবং সটার্টআপের জন্য ভারতে আসুন। কিছু সেরা পর্যটন স্থান এবং মানুষের উষ্ণ আতিথেয়তার অভিজ্ঞতা পেতে ভারতে আসুন। ভারত দু'হাত খুলে আপনাদের জন্য অপেক্ষা করছে।"

ব্যবসায়ী মহলের সামনে বক্তব্য রাখতে গিয়ে তিনি 'মেক ইন ইন্ডিয়া' ও ভারতকে ৫ ট্রিলিয়ন মার্কিন ডলার অর্থনীতির করে তোলার স্বপ্নের কথাও জানান। বলেন, "খুব শীঘ্রই ভারত তা অর্জন করবে। ভারত এখন ৫ ট্রিলিয়ন মার্কিন ডলারের অর্থনীতি হওয়ার দিকে। ২০১৪ সালে আমার সরকার যখন ক্ষমতায় এসেছিল তখন ভারতের জিডিপি (GDP) ছিল প্রায় ২ ট্রিলিয়ন ডলার। ৫ বছরে আমরা এটি প্রায় ৩ ট্রিলিয়ন মার্কিন ডলারে উন্নীত করেছি। এটিই আমাকে নিশ্চিত করেছে যে ৫ ট্রিলিয়ন ডলারের অর্থনীতির স্বপ্ন শীঘ্রই বাস্তবে রূপ পাবে।"