Pakistan: পরীক্ষাকেন্দ্রে প্রকাশ্যে প্রতারণার খবর সংবাদমাধ্যমে ফাঁস, ক্ষিপ্ত পড়ুয়াদের হাতে বেধড়ক মার খেলেন মহিলা সাংবাদিক
প্রতীকী ছবি (Photo Credits: IANS)

ইসলামাবাদ, ১৯ মেঃ করাচিতে (Karachi) মাধ্যমিক পরীক্ষা (Matric Exam) চলাকালীন প্রকাশ্যে প্রতারণা, প্রশ্নপত্র ফাঁস সহ একাধিক অভিযোগ উঠছে কিছুদিন যাবত। পাকিস্তানের (Pakistan) বিভিন্ন সংবাদমাধ্যমে নিত্য তা নিয়ে লেখালেখি হচ্ছে। এরই মাঝে করাচিতে এক মহিলা সাংবাদিককে বেধড়ক মারধরের অভিযোগ উঠল পরীক্ষাকেন্দ্রে প্রতারণার সঙ্গে যুক্ত একদল যুবকের বিরুদ্ধে। মহিলা সাংবাদিককে মারধরের ভিডিয়ো ছড়িয়ে পড়ে সমাজমাধ্যমে।

এক পাকিস্তান সংবাদমাধ্যম সূত্রে খবর, করাচিতে মাধ্যমিক পরীক্ষাকেন্দ্রে প্রকাশ্যে প্রতারণা করছে পরীক্ষার্থীরা, সেই খবর সংবাদমাধ্যমে ফাঁস হতেই চোটে যায় পড়ুয়ারা। এরপরেই এক পরীক্ষাকেন্দ্রের বাইরে ওই মহিলা সাংবাদিককে একা পেয়ে মারধর করে ক্ষিপ্ত পড়ুয়ারা। পরীক্ষার্থীদের হাতে মহিলা সাংবাদিকের মার খাওয়ার ভিডিয়ো প্রকাশ্যে আসতেই নড়েচড়ে বসেছে সে দেশের পুলিশ প্রশাসন। পাকিস্তান স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী সিনিয়র পুলিশ সুপারকে ঘটনার বিশদ তদন্ত রিপোর্ট জমা দিতে বলেছেন।

জানা যাচ্ছে, করাচির ওই স্কুল অধ্যক্ষ সহ সন্দেহভাজন তিনজনকে ইতিমধ্যেই গ্রেফতার করেছে পুলিশ। বেশ কিছুদিন ধরেই করাচির বিভিন্ন স্কুলে মাধ্যমিক পরীক্ষা ঘিরে একাধিক অনিয়মের অভিযোগ উঠছে। কোথাও পরীক্ষার্থীদের জন্যে আসবাবপত্রের অভাব, কোথাও পরীক্ষা চলাকালীন প্রকাশ্যে প্রতারণার অভিযোগ। এছাড়া পরীক্ষা শুরু হওয়ার আগে প্রশ্নপত্র ফাঁস, পরীক্ষা চলাকালীন বিদ্যুৎ চলে যাওয়ার মত নানা ঘটনা ঘটে চলেছে করাচি মাধ্যমিক শিক্ষা বোর্ডের অধীনে নবম এবং দশম শ্রেণির পরীক্ষার সময়ে।