Justin Trudeau: করোনার অসন্তোষ সামলে কানাডার মসনদে ফের জাস্টিন ট্রুডো, নিরঙ্কুশ সংখ্যাগরিষ্ঠতা না পেলেও হ্যাটট্রিক ট্রুডো-র
Justin Trudeau, Erin O'Toole. (Photo Credits: Facebook)

ওটোয়া, ২১ সেপ্টেম্বর: নির্বাচনে জিতে কানাডার প্রধানমন্ত্রী পদে ফিরছেন জাস্টিন ট্রুডো (Justin Trudeau)। করোনা সামলানো নিয়ে ট্রুডো প্রশাসনকে নিয়ে প্রশ্ন ছিল। মনে করা হচ্ছিল, করোনার অসন্তোষে এবার হয়তো হেরে যাবেন ট্রুডো। কিন্তু গত পাঁচ সপ্তাহে লিবারাল দলের হয়ে প্রচারে ঝড় তুলে ট্রুডো গদি বাঁচিয়ে নিলেন। যদিও তিনি নিরঙ্কুশ সংখ্যাগরিষ্ঠতা পাননি। নিরঙ্কুশ সংখ্যাগরিষ্ঠতা পেলে চাই ১৭০টি আসন। সেখানে দেশের ৪৪তম সাধারণ নির্বাচনে ট্রুডোর দল লিবারল জিতেছে/ এগিয়ে রয়েছে ১৪৮টি আসনে। প্রধান বিরোধী দল কনজারভেটিভ পার্টি সেখানে ১০২টি আসন পেয়েছে।

নির্বাচনে জিতে ৪৯ বছরের জাস্টিন ট্রুডো বললেন, " ধন্যবাদ কানাডাবাসী। তোমরা আমাকে ফের কাজ করা সুযোগ দিলে। পরিষ্কার রায়ে দেশ বেছে নিয়ে উজ্জ্বল ভবিষ্যত। আমরা কোভিডের বিরুদ্ধে যুদ্ধটা শেষ করব এবং কানাডাকে এগিয়ে নিয়ে যাবো উজ্জ্বল ভবিষ্যতের দিকে।"আরও পড়ুন: ৩ দিন মহাকাশে কাটিয়ে পৃথিবীতে ফিরলেন চার নভশ্চর

দেখুন ট্রুডোর টুইট

জাস্টিনের প্রধান প্রতিপক্ষ ছিলেন কনজারভেটিভ দলের নেতা এরিন ও টোলে। ডারহামের প্রতিনিধি এরিন প্রচারে অনেক খরচ করলেও পারলেন না।

কানাডায় দু বছর আগে সাধারণ নির্বাচন হয়েছিল। ২০১৯ নির্বাচনে একচেটিয়া জিতেছিল ট্রুডোর দল। এবার সেখানে টক্কর হল। ২০১৫ সাল থেকে কানাডার প্রধানমন্ত্রী রয়েছেন জাস্টিন ট্রুডো। জাস্টিনের বাবা পিরে ট্রুডো ১৯৬৮ থেকে ১৯৮০ পর্যন্ত দেশের প্রধানমন্ত্রী ছিলেন।