India-Maldives Relationship: বিরোধীদের কটাক্ষ করতে গিয়ে ভারতীয় পতাকাকে অসম্মানের অভিযোগ, ক্ষমা চাইলেন মালদ্বীপের বহিষ্কৃত মন্ত্রী
Maldives President Mohamed Muizzu and Ex-Minister Mariyam Shiuna (Photo Credits: X)

ভারত এবং ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে (Narendra Modi) নিয়ে অবমাননাকর মন্তব্যের অভিযোগ উঠেছিল মালদ্বীপের তিন মন্ত্রীর বিরুদ্ধে। তাঁর উপর গত নভেম্বরে মালদ্বীপের ক্ষমতা বদল এবং মহম্মদ মুইজ্জুর প্রেসিডেন্ট (Maldives President Mohamed Muizzu) হওয়ার পর থেকেই দুই দেশের দ্বিপাক্ষিক সম্পর্ক ক্রমশ তলানিতে এসে ঠেকেছে। চিন ঘনিষ্ঠ মইজ্জু 'ভারত বিরোধী' হিসাবে পরিচিত। সেই সময়ে সোশ্যাল মিডিয়া জুড়ে মালদ্বীপ বয়কটের ডাক দিয়েছিল দেশবাসী। আবারও ফের ভারতকে অসম্মান করার অভিযোগ উঠল মালদ্বীপের এক মন্ত্রীর বিরুদ্ধে। ভারতীয় পতাকাকে অসম্মান করার অভিযোগ উঠেছে মইজ্জু প্রশাসনের মন্ত্রী মারিয়াম শিউনার বিরুদ্ধে। জানা যাচ্ছে, তাঁকে সাসপেন্ড করেছেন প্রেসিডেন্ট মইজ্জু।

মইজ্জু প্রশাসনের ওই মন্ত্রীর বিরুদ্ধে অভিযোগ, বিরোধী দল মালদ্বীপিয়ান ডেমোক্রেটিক পার্টিকে (MDP) নিশানা করে তিনি একটি পোস্ট শেয়ার করেছিলেন নিজের এক্স হ্যান্ডেল থেকে। সেখানে ভারতের জাতীয় পতকা অশোকচক্রের ছবি ছিল। যা ঘিরে শুরু হয় অশান্তি। বিতর্কের জেরে সেই পোস্টটি মুছে ফেলেন মারিয়াম। তবে তাঁর পোস্টের স্ক্রিনশর্ট ঘুরছে সোশ্যাল মিডিয়ায়। মালদ্বীপ মন্ত্রীর ওই পোস্ট ঘিরে ভারত থেকে তাঁর বিরুদ্ধে পদক্ষেপের দাবি ওঠে। বিতর্কের মাঝে পোস্ট মুছে তড়িঘড়ি ক্ষমা চাইলেন মারিয়াম।

বিতর্ক দূর করতে এক্স হ্যান্ডেল থেকে সাস্পেন্ডেড মন্ত্রী লেখেন, 'আমার সাম্প্রতিকতম সোশ্যাল মিডিয়া পোস্ট ঘিরে যে বিতর্কের সৃষ্টি হয়েছে তার জন্যে আমি ক্ষমা চাইছি। আমি জানতে পারলাম, এমডিপ-কে নিয়ে করা আমার পোস্টে ব্যবহৃত ছবির সঙ্গে ভারতের জাতীয় পতাকার সাদৃশ্য রয়েছে। আমি এটা স্পষ্ট করতে চাই যে এটি একটি সম্পূর্ণ অনিচ্ছাকৃত ভুল। এটির কারণে দুই দেশের মধ্যে ভুল বোঝাবুঝি হতে পারে না'।