Coronavirus: কমোডের ফ্ল্যাশ থেকেও বাতাসে দ্রুত ছড়াতে পারে করোনাভাইরাস, কী বলছে স্টাডি?
প্রতীকী ছবি (Photo Credits: Pixabay)

বেজিং, ১৭ জুন: এবার আর বাইরে নয়, বাথরুম থেকেও ছড়াতে পারে করোনাভাইরাস (Coronavirus)। ফ্ল্যাশ করলে উচ্চগতি সম্পন্ন জল হাওয়ার সঙ্গে মিশে কমোডে ঘুরতে থাকে। বায়বীয় কণাগুলি বায়ুমণ্ডলে ভেসে বেড়ায়। এই বায়বীয় কণার সঙ্গে মিশে যেতে পারে কোভিড-১৯ এর জীবাণু। তাই পরবর্তী বাথরুম ব্যবহারকারীর জন্য ডেকে আনতে পারে চরম বিপদ। সেজন্য ফ্ল্যাশ করার আগে নামিয়ে দিন কমোডের ঢাকনা। চিনের ইয়াংজাউ বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষকরা দেখিয়েছেন কীভাবে করোনাভাইরাস কমোডে ফ্ল্যাশের মাধ্যমে বাতাসে ভেসে বেড়ায়। কম্পিউটার মডেলিংয়ের মাধ্যমে গোটা সংক্রমণ ছড়ানোর গোটা প্রক্রিয়াটিই দেখানো হয়েছে।

ফিজিক্স অফ ফ্লুয়িড জার্নালে একটি পেপাড় প্রকাশিত হয়েছে, তাতে বলা হয়েছে কমোডে ফ্ল্যাশের সঙ্গে সঙ্গেই একটা উচ্চ গতি সম্পন্ন হাওয়া ও জলের সংমিশ্রণে বায়বীয় কণায় মিশে যেতে পারে কোভিডের জীবাণু, তারপর যিনি বাথরুম ব্যবহার করবেন তাঁর সংক্রামিত হওয়ার সম্ভাবনা সবথেকে বেশি। তাই পাবলিক টয়লেট এড়িয়ে চলুন। এবং ব্যস্ততার সময়ে বাড়িতেও এই বিপদ আসতে পারে। সেজন্য প্রয়োজনীয় সুরক্ষা নিন। বাথরুম নিত্যপ্রয়োজনীয় একটা জিনিস। তবে তার ব্যবহার যদি সঠিক না হয় তাহলে এই মহামারীর সময়ে বড়সড় বিপদ ডেকে আনতে পারে। টয়লেট থেকে ফ্ল্যাশের সময় ৪০-৫০টি বায়বীয় কণা বাতাসে ভেসে বেড়ায়। এবার বারংবার ফ্ল্যাশ হলে আরও বেশি বায়বীয় কণা ছড়িয়ে পড়বে। এর হাত ধরে সংক্রমণও ছড়াবে। আরও পড়ুন-India-China Face-Off in Ladakh: ‘সবাই তো মারা যায়, তবে দেশের জন্য শহিদ হওয়ার সুযোগ সম্মানের;’ কর্ণেল ছেলেকে হারিয়ে কী বললেন বাবা?

তাই ফ্ল্যাশের আগে কমোডের ঢাকনা নামিয়ে দিন। এমনকী বসার আগে জায়গাটি ধুয়ে ফেলুন। যাতে সারফেসে কোভিডের জীবাণু থাকলে তা আপনার সংস্পর্শে না আসে। ফ্ল্যাশিংয়ের পর বাল করে হাত ধুয়ে ফেলুন। কারণ করোনা ফ্ল্যাশ বাটনেও বাসা বাঁধতে পারে। এরপর বাথরুমের হাতল ব্যবহার করে হাত ধুয়ে নিন ভালভাবে। এই পেপাড় হয়তো টয়লেটের সামগ্রী প্রস্তুতকারকদের নতুন ভাবনা চিন্তার সুযোগ দেবে। এমন কোনও কমোড আসবে যার ঢাকনা ব্যবহারের পর নিজে থেকেই পড়ে যায়। এবং ফ্ল্যাশের আগে পড়ে আপনা থেকেই কমোড সাফ হয়ে যায়।