West Bengal:  স্কুল খোলার পর শুধু পড়ুয়ারাই নয়, অভিভাবকদেরও যেন মন খোলা আনন্দ
Kolkata School (Photo Credit: ANI/Twitter)

কলকাতা, ১৭ নভেম্বর: গতকাল অর্থাৎ মঙ্গলবার থেকে রাজ্যে স্কুল খুলে (School Reopen) গিয়েছে। অনলাইন থেকে এবার অফলাইনে ক্লাস। পাশে বন্ধুরা। এ যেন পরম প্রাপ্তি। আর একই সঙ্গে পড়ুয়াদের অভিভাবকরাও একে অপরের বন্ধু হয়ে যায় (Guardian Meet)। ছেলে-মেয়েদর স্কুলে পৌঁছে দিয়ে তাঁদের আড্ডাও বেশ জমজমাটি হতো। কিন্তু স্কুল বন্ধ থাকায় সেও এতদিন বন্ধ ছিলো। তাই স্কুল খোলার পর আবার যেন আগের মতো জমাটি আড্ডা যেন শেষই হতে চায় না।

তবে স্কুল খোলার আগে থেকেই পড়ুয়া এবং অভিভাবকরা হাজির ছিলেন। গেটের সামনে থেকে এক এক করে পড়ুয়াদের ঢোকানো হচ্ছিল। দেহের তাপমাত্রা মাপা, হাত স্যানিটাইজ করার পরই ক্লাসঘরে যাওয়ার অনুমতি দেওয়া হয়েছে পড়ুয়াদের। শিক্ষা দফতর জানিয়েছে, ক্লাস শুরুর আধঘণ্টা আগে স্কুলে পৌঁছতে হবে পড়ুয়াদের। স্কুলের করিডর, গেটে নির্দিষ্ট দূরত্ব মেনে চিহ্ন এঁকে দিতে হবে। আরও পড়ুন: বিএসএফ-র তৎপরতায় জলঙ্গিতে উদ্ধার ১০ হাজার মার্কিন ডলার

স্কুলে প্রবেশাধিকার থাকবে না অভিভাবকদের। পড়ুয়া, শিক্ষক, শিক্ষাকর্মীদের স্টাফ স্পেশাল ট্রেনের পাস দেওয়া হবে বলে জানিয়েছে শিক্ষা দফতর। সংশ্লিষ্ট শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের প্রধান সেই পাস ইস্যু করতে পারবেন। এদিকে অভিভাবকরা স্কুলে প্রবেশ করতে পারবেন না। মিড-ডে মিল দেওয়া হবে না স্কুলে। বাড়িতে পাঠিয়ে দেওয়া হবে মিড-ডে মিলের সরঞ্জাম। নবম ও একাদশ শ্রেণির ক্লাস হবে সকাল ১০টা থেকে দুপুর সাড়ে ৩টে। আর দশম ও দ্বাদশের ক্লাস হবে সকাল ১১টা থেকে বিকেল সাড়ে ৪টে পর্যন্ত।

অন্যদিকে, কার্যত অনির্দিষ্টকালের জন্য দিল্লিতে স্কুল, কলেজ বন্ধ (School-College)। হ্যাঁ, দিল্লির দূষণের (Delhi Pollution) জন্যই এই সিদ্ধান্ত। একই সঙ্গে ৫০ শতাংশ ওয়ার্ক ফ্রম হোম করার কথাও জানানো হয়েছে। দিল্লিতে প্রতি বছরই নভেম্বর-ডিসেম্বর মাসে মাথাব্যথার কারণ দাঁড়ায় দূষণ (Severe Air Quality)। তবে দূষণের কথা মাথায় রেখে দিল্লি ও এনসিআর-এর অফিসগুলোর জন্য আগেই বেশ কিছু সতর্কতা জারি করেছিল প্রশাসন। যতটা সম্ভব কম বাইরে বের হতে বলা হয়েছে। গাড়ির ব্যবহার কমাতে বলা হয়েছে। তবে মঙ্গলবার একেবারে নির্দেশিকা জারি করা হয়েছে।