TMC Martyrs’ Day Rally: এবারও ভার্চুয়াল শহীদ দিবস তৃণমূলের, করোনায় ঝুঁকি না নিয়ে ঐতিহাসিক জয়ের পরও উচ্ছ্বাসকে অনলাইনেই বাঁধলেন দিদি
মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায় (Picture Credits: ANI)

কলকাতা, ৬ জুলাই: নরেন্দ্র মোদী-অমিত শাহ-র যাবতীয় চেষ্টা উড়িয়ে ক মাস আগেই রাজ্য বিধানসভা নির্বাচনে ঐতিহাসিক জয় পেয়েছে তৃণমূল কংগ্রেস (TMC)। পরপর তিনবার রাজ্যের বিধানসভা ভোটে জিতেছ তৃণমূল। দিদির ম্যাজিকে আগের দু বারের চেয়েও বেশি সংখ্যক আসনে জিতে ক্ষমতায় ফিরেছে দল। তাই এবারের তৃণমূলের ২১ জুলাই নিয়ে নেতা-কর্মী-সমর্থকদের মধ্যে আলাদা উন্মাদনা আছে। যেভাবে বিজেপি-র লাখো চেষ্টা সত্ত্বেও দিদি ২০০-র বেশি আসনে জিতে ক্ষমতায় এসেছেন, তাতে জোড়াফুলের সমর্থকরা এখনও বুকের ভিতর বাঁধভাঙা উচ্ছ্বাস নিয়ে ঘুরছেন। করোনার ভয়ে নির্বাচনের ফল বের হওয়ার পরে সেভাবে উচ্ছ্বাস, বা বিজয় মিছিল করা যায়নি। আরও পড়ুন: শেষরক্ষা হল না, চেন্নাইতে প্রয়াত মুকুল রায়ের স্ত্রী

With the blessings of the people of Bengal who have willed us to a landslide victory and a historic third term in government, I will be addressing my brothers and sisters on July 21st #ShahidDibas at 2PM, virtually, owing to the restrictions to curb the pandemic. (2/2)

সব উচ্ছ্বাস তোলা ছিল পরের জন্য। কিন্তু সেই পরেরটা ২১ জুলাই হচ্ছে না। রাজ্যে করোনার দ্বিতীয় ঢেউ কমতির দিকে থাকলেও আগামী ২১ জুলাই, তৃণমূলের শহিদ দিবস ভার্চুয়ালিই হচ্ছে। সোশ্যাল মিডিয়ায় তৃণমূল সুপ্রিম মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় জানিয়ে দেয়, করোনা নিয়ন্ত্রণের কথা মাথায় রেখে এবারের ২১ জুলাই, শহীদ দিবসে তিনি ঠিক দুপুর ২টোয় ভার্চুয়ালি উপস্থিত থেকে বক্তৃতা দেবেন। গতবারও ভার্চুয়ালি হয়েছিল তৃণমূলের শহীদ দিবস।

ভোটের বছরখানেক আগে হওয়া সেই ভার্চুয়াল সভায় অনলাইনে বক্তব্য রেখেছিলেন মমতা। শহরের বেশ কিছু জায়গায় বড় পর্দায় মমতার বক্তব্য শোনানো হয়েছিল।

রাজ্যে ২১ জুলাই তারিখটা তোলা থাকে তৃণমূলের মেগা Rally-র জন্য। ১৯৯৩ সালে যুব কংগ্রেসের ১৩ জন কর্মী-সমর্থকদের পুলিশের গুলিতে মৃত্যুর ঘটনাকে স্মরণ করে প্রত্যেক বছরই এই দিনটি পালন করেন মমতা ব্যানার্জি। তৃণমূল তৈরির পর থেকে এই ২১ জুলাইটাই তৃণমূলের নিজেদের শক্তি প্রদর্শনের সবচেয়ে বড় মঞ্চ হয়ে দাঁড়িয়েছে। কখনও ব্রিগেড, তো কখনও ধর্মকলা। জায়গা যেখানেই হোক দিদি হারুন, জিতুন। ২১ জুলাই দিদির বক্তব্য শুনতে রেকর্ড ভিড় হয়েছে। ২০১১ বিধানসভা নির্বাচনের থেকেও ২০২১ নির্বাচনে মমতার জয়ের তাতপর্য কিছু জায়গায় ছাপিয়ে গিয়েছে। মুকুল রায় ফের তৃণমূলে ফিরেছেন। রাজ্যে বিজেপি- ছেড়ে ফের তৃণমূলে যোগদানের হিড়িক পড়েছে। টলিউডে তৃণমূলের টিকিটে দাঁড়ানো সেলেবরা বেশিরভাগই জিতেছেন। এমন অবস্থায় চলতি বছর যদি ভার্চুয়ালি না হয়ে সরাসরি শহীদ দিবসের অনুষ্ঠান একেবারেই অসম্ভব ছিল।