Suvendu Adhikary: 'নন্দীগ্রামেই প্রার্থী হিসেবে দাঁড়াতে হবে', মমতা ব্যানার্জিকে বার্তা শুভেন্দু অধিকারীর
শুভেন্দু অধিকারী (Photo Credits: Facebook)

কলকাতা, ১৯ জানুয়ারি: ভবানীপুরও তাঁর ভালবাসার জায়গা। অন্যদিকে নন্দীগ্রামের সঙ্গে তাঁর আত্মার টান। দু'জায়গা থেকেই ২১-র নির্বাচনে (2021 West Bengal Assembly Election) প্রার্থী হিসেবে দাঁড়ানোর ইচ্ছেপ্রকাশ করেছিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি (Mamata Banerjee)। এনিয়ে ইতিমধ্যেই মাননীয়াকে চ্যালেঞ্জ ছুঁড়ে দিয়েছেন শুভেন্দু অধিকারী (Suvendu Adhikary)। তাঁর স্পষ্ট বার্তা, নন্দীগ্রামে মমতা ব্যানার্জিকে ৫০ হাজার ভোটে পরাজিত করতে না পারলে রাজনীতি ছেড়ে দেবেন বিজেপি নেতা। এই রাজনৈতিক বার্তার পর ২৪ ঘণ্টা কাটতে না কাটতেই ফের মমতা ব্যানার্জিকে কড়া আক্রমণ শুভেন্দু অধিকারীর। আরও পড়ুন: Mamata Banerjee at Purulia Rally: পুরুলিয়ার জনসভায় ভাষা আন্দোলনের জয় জয়কার থেকে প্রচুর কর্মসংস্থানের আশ্বাস মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জির

মঙ্গলবার হেঁড়িয়ার সভা থেকে শুভেন্দু বলেন, "তৃণমূল নেত্রী মমতা ব্যানার্জিকে হতাশাগ্রস্থ লাগছে দলের ভবিষ্যত নিয়ে। নন্দীগ্রামে যারা শহিদ হয়েছিলেন, তাদের নাম কাগজে দেখে পড়তে হল ওনাকে।" শুধু এখানে বলেই ক্ষান্ত থাকেননি শুভেন্দু অধিকারী। তিনি স্পষ্ট জানান, ভবানীপুর নাকি নন্দীগ্রাম। কোন এলাকা থেকে মাননীয়া দাঁড়াবেন তা স্থির করার জন্য। মমতা ব্যানার্জির দু'জায়গায় প্রার্থী হিসেবে দাঁড়ানো নিয়েও প্রশ্ন তুলেছেন শুভেন্দু অধিকারী।

শুভেন্দু অধিকারী আরও বলেন, '৬২ হাজার ভোটের আশায় নন্দীগ্রামে দাঁড়াচ্ছেন মমতা? আর ২ লক্ষর বেশি ভোটে জিতবে বিজেপি।' লোকসভা ভোটে ভবানীপুর কেন্দ্র থেকে পিছিয়েছিল তৃণমূল, সেই কারণেই কী নন্দীগ্রামে লড়াইয়ের পথ বেছে নিলেন তৃণমূল সুপ্রিমো? এমনটাই প্রশ্ন তুলছেন পর্যবেক্ষকরাও। নন্দীগ্রামে ৩০% সংখ্যালঘু ভোট। সেক্ষেত্রে মমতা ব্যানার্জি ওই আসনে প্রার্থী হিসেবে দাঁড়ালে সংখ্যালঘুর পুরো ভোটটাই তৃণমূল কংগ্রেসের দখলে আসতে পারে বলে মত রাজ্যের শাসক দলের অন্দরমহলে। আবার ভবানীপুর, মাননীয়ার নিজের পাড়া। লোকসভা নির্বাচনে পিছিয়ে থাকলেও বিধানসভা ভোটে নিজের পাড়ার মেয়েকে জেতানোর চেষ্টাও দেখা যেতে পারে ভোটবাক্সে। তবে অবশেষে কী সিদ্ধান্ত নেবে তৃণমূল শিবির। সেটা সময়ই বলবে।