Coronavirus: করোনা যুদ্ধে মিশে গেল রাজনীতির রঙ, দলমত নির্বিশেষে সকলেই তহবিলে তুলে দিলেন টাকা
Photo Source: Wikipedia

কলকাতা, ২৫ মার্চ: করোনাকে (Coronavirus) হারাতে মিশে গেল রাজনীতির রঙ। বিধায়ক তহবিল থেকে ১০ লক্ষ টাকা করে করোনা-মোকাবিলার জন্য তুলে দিলেন বাম বিধায়কেরা। বিজেপি (BJP MLA) সাংসদেরাও তুলে দিলেন কেউ ১ কোটি কেউ বা ৫০ লক্ষ। রাস্তায় বেরিয়ে রাজ্য সরকারের পাশে থাকার জন্য অনুরোধ করলেন বিরোধী দলের নেতা-নেত্রীরা। করোনা-মোকাবিলায় ফ্রন্টফুটে দাঁড়িয়ে লড়াই চালাচ্ছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যার্নাজি (CM Mamata Banerjee)। যার জন্য তাঁকেও কুর্নিশ বিরোধী দলের নেতা-কর্মীদের। রাজনীতির রঙ যেন একেবারে মিলেমিশে একাকার বাংলায়। আরও পড়ুন: Coronavirus in Kolkata: হোম কোয়ারান্টাইন নিয়ে নতুন নির্দেশিকা স্বাস্থ্য দপ্তরের, জেনে নিন কী কী আছে তাতে 

সোমবার রাতে মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জির কাছে একটি চিঠি লেখেন বাম পরিষদীয় নেতা সুজন চক্রবর্তী। সেই চিঠিতেই বাম পরিষদীয় নেতা সুজন চক্রবর্তী লেখেন, করোনাভাইরাসের সংক্রমণ রুখতে চিকিৎসা পরিকাঠামো এবং অন্যান্য প্রয়োজনে বাম বিধায়কেরা নূন্যতম ১০ লক্ষ টাকা বরাদ্দ করবেন । পাশাপাশি তিনি এও লেখেন, করোনাভাইরাসের বিরুদ্ধে লড়াইয়ের জন্য সামান্য চেষ্টা এটা। তবে এই বিপর্যয়ের মুখে রাজ্যের এক এক জন নাগরিকের এক একটি টাকাও রাজ্যের জন্য ভীষণ গুরুত্বপূর্ণ বলে জানান মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি।

অন্যদিকে, করোনা তহবিলেও নিজেদের সাধ্যমত সাহায্য করার সিদ্ধান্ত নিচ্ছেন রাজ্যের বিজেপি সাংসদরা। সাংসদ তহবিল থেকে রাজ্য বিজেপির মহিলা মোর্চার সভানেত্রী লকেট চট্টোপাধ্যায় করোনা ভাইরাসের মোকাবিলা ও আক্রান্তের চিকিৎসার জন্য নিজের সাংসদ কোটা থেকে হুগলির জেলাশাসকের হাতে ১ কোটি টাকা তুলে দেন। এছাড়া কেন্দ্রীয় প্রতিমন্ত্রী দেবশ্রী চৌধুরী-সহ রাজু বিস্তা, জন বার্লা, নিশীথ প্রামাণিক, কুঁওয়ার হেমব্রম ৫০ লক্ষ টাকা করে এবং সুকান্ত মজুমদার ৩০ লক্ষ টাকা করোনা মোকাবিলায় করোনা তহবিলে দেওয়ার কথা ঘোষণা করেছেন।