WB Assembly Elections 2021: ‘শীতলকুচিতে খুনের ঘটনায় তদন্ত করব, বিজেপি গো-হারা হারবে;’ মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়
মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়(Photo Credits: Twitter)

রানাঘাট, ১২ এপ্রিল: “শীতলকুচিতে খুনের ঘটনায় তদন্ত করব। ছেড়ে দেব না। শীতলকুচিতে গুলি চালনার ঘটনায় সম্পূর্ণ প্ল্যান অমিত শাহর। প্রধানমন্ত্রী জানতেন। এখন ক্লিনচিট দিচ্ছেন। পুলওয়ামায় কী হয়েছিল আমরা জানি, বেশি মুখ খোলাবেন না। আপনি ট্রাম্পের হয়ে মিটিং করছিলেন। বাংলাদেশিদের অনুপ্রবেশকারী বলে চিৎকার করছেন, আবার ভোট এসেছে বলে মতুয়াদের নিয়ে বাংলাদেশে গেছেন। নির্বাচনে বিজেপি গো হারা হারবে। বাংলা বাংলায় থাকবে। বাংলা বাংলাকে বাঁচাবে।” রানাঘাটের সভা থেকে মোদি শাহকে বিঁধলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তিনি বলেন, “আমার একাকে নিয়ে ওদের এত ভয় ১ লাখ লোক এনে বসে আছে। আমি একা আমার সঙ্গে আরও ৯৯টা লোক আছে। আমি একশো। আমি সৃষ্টি তুমি ধ্বংস, আমি মানবিক তুমি দানবিক। কেউ ভোট নষ্ট করবেন না। ভোট না দিলে আধারকার্ড থেকে নাম কাটবে ওরা। সকাল সকাল ভোট দেবেন।” আরও পড়ুন-WB Assembly Elections 2021: ‘ঠগ, প্রতারক, মিথ্যাবাদী’, অমিত শাহকে টুইটারে কড়া জবাব ডেরেক ও’ব্রায়েনের

“যতদিন বাঁচব বীরের মতো লড়ব, কাপুরুষের মতো নয়। মানুষের মানসিকতা বড় হওয়া দরকার। ভাষা ভালবাসি, কিন্তু গুজরাটি বাংলা দখল করুক এটা আমি চাই না। গুলিতে ঝাঁঝরা করে দিয়ে বলছে চারজনের জায়গায় আটজনকে মারা উচিত। এই বিজেপিকে ভোট দেবেন। আজকের সিদ্ধান্ত হোক বাংলা মাকে বাঁচানো। এই সব কাজের জন্য় আমি আপনাদের পাহারাদার। আমি মুখ্যমন্ত্রী হিসেবে মাইনে নিই না। মুখ্যমন্ত্রীর চেয়ারে বসি না। একটা সাধারণ চেয়ারে বসি। এক টাকার চা-ও সরকারের টাকায় খাই না। যতদিন বাঁচব মানুষের জন্য কাজ করব। কারা কারা গুলি চালিয়েছে, কী করে প্ল্যান করেছে বিজেপি। প্ল্যান করে গুলি চালিয়েছে। গুলি চালিয়ে ঝাঁঝরা করেছে। নিজের কর্মীকে খুন করেছো, বিজেপি তোমরা লজ্জা করে না। কোভইডের সময় তো কেউ আসোনি। এখন ভোট এসেছে তাই আসছো। তোমর হোচ্ছ একেবারে বসন্তের কোকিল। বসন্ত আসলে ডাকো আর অন্য সময় ভোট হাঁকো।”

“বিনা পয়সায় চাল পাচ্ছেন? আপনাদের শুধু বিনা পয়সায় রেশন দেওয়াই নয়, দুয়ারে দুয়ারে পৌঁছে দেব। আমরা কাজ করি বলে বলছি। বিজেপি করেনা শুধু মিথ্যে কথা বলে। বিনা পয়সা গ্যাস দেবে বলেছিল, উজ্বালা, এখন উধাও। বাড়ি বাড়ি পৌঁছাবে পানীয়জল। প্রকল্প হচ্ছে। তাঁতসাথী চলছে। নদিয়ায় অনেক উন্নয়ন হবে। নবদ্বীপে ব্যবসা বাড়বে। তীর্থধাম হয়ে উঠবে নবদ্বীপ। বাড়বে পর্যটন। বাচ্চা জন্মালে সবুজশ্রী গাছের চারা দেওয়া হবে। বন্ধু আমার খুব দুঃখ। শীতলকুচিতে ভোটের লাইনে গুলি চালিয়েছে, বিজেপিকে কেউ ক্ষমা করবেন না। ওরা নিজেদের লোককেও খুন করে। দেখেননি ওদের প্রার্থী নিজেই গাড়ির কাচ ভাঙছিলেন।”