বেপরোয়া বাইক চালককে আটক করায়, খাস কলকাতায় থানায় ঢুকে কনস্টেবলকে মার
প্রতীকী ছবি। (Photo Credits:Twitter)

কলকাতা, ১২ অগাস্ট: কলকাতা শহরের বুকে ফের আক্রান্ত পুলিশ। টালিগঞ্জ থানার ভিতরে ঢুকে কনস্টেবলকে মারধর করার ঘটনা ঘটল। রবিবার রাতে টালিগঞ্জ থানা উত্তপ্ত হয়ে ওঠে এক বাইক চালককে আটকের ঘটনাকে কেন্দ্র করে। পুলিশের কথা অনুযায়ী, রাত দশটা নাগাদ সাদার্ন অ্যাভানিউ থেকে মত্ত অবস্থায় বিপজ্জনকভাবে বাইক চালানোর অপরাধে সেই যুবককে আটক করে থানায় নিয়ে আসা হয়েছিল। মত্ত অবস্থায় বাইক চালানোর অপরাধে আটক করা সেই বাইক চালকের নাম রণজয় হালদার।

চেতলার বাসিন্দা রণজয়ের থানায় আটকের খবর খবর পেয়ে থানায় এসে হাজির হন যুবকের পরিবার ও প্রতিবেশীরা। এরপর থানায় ঢুকে রণজয়ের পরিবার ও প্রতিবেশীরা পুলিশকে রীতিমত শাসানি দিতে থাকে। গলা চড়িয়ে, টেবিল চাপড়ে চলে পুলিশকে ধমক দেওয়ার পর্ব। বাধা দিতে গেলে আক্রান্ত হন এক কনস্টেবল। আরও পড়ুন-সন্ধ্যায় বিরাট কোহলির দাপুটে সেঞ্চুরি, রাতে ভূবি-র বল হাতে আগুন

তাঁকে মারধর করা হয় বলে অভিযোগ। রণজয়ের পরিবার ও প্রতিবেশীদের বক্তব্য কর্তব্যরত পুলিশ কর্মীরা মত্ত অবস্থায় তাঁদেরকেও মারধর করেন। মধ্য রাতের দিকে আটক সেই যুবককে ছেড়ে দেওয়া হয় বলে খবর। পুরো ঘটনার পর টালিগঞ্জ থানার পুলিশদের বিরুদ্ধেই অভিযোগ দায়ের করেছেন যুবকের পরিবারের সদস্যরা। টালিগঞ্জ থানায় আরও বাহিনী এসে পৌঁছলে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আসে। যদিও পুলিশের তরফ থেকে এখনও পর্যন্ত কোনও অভিযোগ দায়ের করা হয়নি।

রবিবর রাতে ১০টা নাগাদ সাদার্ন অ্যাভিনিউ এলাকায় এক যুবক মদ্যপ অবস্থায় বাইকে চেপে যাচ্ছিল। সেই সময় কর্তব্যরত পুলিশ তাকে আটক করে। পুলিশের অভিযোগ, ওই যুবক তাদের উদ্দেশে গালিগালাজ শুরু করে।