Rudranil Ghosh: কুপ্রস্তাব থেকে নোংরা মেসেজের অভিযোগ, রুদ্রনীলের বিরুদ্ধে বিস্ফোরক তরুণী
রুদ্রনীল ঘোষ, ছবি ফেসবুক

কলকাতা, ৫ মে:  রুদ্রনীল ঘোষের (Rudranil Ghosh) পতনের শুরু। তাঁর বিরুদ্ধে মামলা করতে রুদ্রনীল সাইবার ক্রাইমে যান বা অন্য কোথাও, তিনি সেসবের পরোয়া করেন না। রুদ্র হেরেছেন বলে তাঁর শহর হাওড়া  খুশি। ২ মে বিধানসভা নির্বাচনের ফল ঘোষণার পর বিজেপির (BJP) তারকা প্রার্থী রুদ্রনীল ঘোষের বিরুদ্ধে ফুঁসে উঠলেন এক তরুণী।

তিনি বলেন, রুদ্রনীল পরাজিত হয়েছেন বলে তিনি খুশি। রুদ্র একবার তাঁকে 'কুপ্রস্তাব' দিয়েছিলেন। তিনি রাজি হননি বলে তাঁকে রুদ্র নিজের প্রযোজনা সংস্থা থেকে বের করে দেন। ওই সময় অসহায়ের মত রুদ্রর প্রযোজনা সংস্থা থেকে বেরিয়ে গিয়েছিলেন কারণ তিনি নবাগত ছিলেন।

 

আমি যদি সত্যি কথা বলি, তাহলে বলব, আমি সবচেয়ে বেশি খুশি হয়েছি রুদ্রনীল ঘোষ-এর হারে। কয়েক বছর আগে, রুদ্রনীলের...

Posted by Nilanjana Pande on Tuesday, May 4, 2021

রুদ্রর সেই মেসেজগুলি তিনি দেখাতে পারবেন না কারণ সেগুলি ডিলিট করে দিয়েছেন। তবে ঈশ্বর শাস্তি দিয়েছেন। আর ঈশ্বরের শাস্তিতে কোনও শব্দ হয় না। রুদ্রনীল ঘষের বিরুদ্ধে এভাবেই একের পর এক বিস্ফোরণ করেন এক তরুণী (Girl)। নিজের ফেসবুক হ্যান্ডেলের মাধ্যমেই রুদ্রর বিরুদ্ধে ফুঁসে ওঠেন তিনি।

আরও পড়ুন:  Sonu Sood: ফের 'ত্রাতা' সোনু, ২২ কোভিড রোগীর প্রাণ বাঁচালেন অভিনেতা

রুদ্রর বিরুদ্ধে একের পর এক অভিযোগ করলেও, এ বিষয়ে পালটা কোনও মন্তব্য করেননি অভিনেতা এখনও পর্যন্ত।

প্রসঙ্গত, রুদ্রনীলের বিরুদ্ধে সম্প্রতি সরব হন অভিনেতা ভাস্বর চট্টোপাধ্যায়ও। ২০০৭ সালে রুদ্রনীল তাঁকে 'মিচকে শয়তান' বলেছিলেন বলে অভিযোগ করেন ভাস্বর। পাশাপাশি তিনি আরও বলেন, তিনি 'মিচকে শয়তান' হতে পারেন কিন্তু রুদ্রর মতো 'ধান্দাবাজ' নন। ভাস্বরের ওই পোস্ট নিয়েও জোরদার জল্পনা শুরু হয় টলিউডের (Tollywood) শিল্পী মহলে।