মুকুল রায়ের বিরুদ্ধে ভাটপাড়া থানায় FIR তৃণমূল নেত্রী চন্দ্রিমা ভট্টাচার্য-এর
মমতা ব্যানার্জি, মুকুল রায়। (File Photo) (Photo Credits: Twitter)

কলকাতা, ৩ সেপ্টেম্বর: মুকুল রায়ের বিরুদ্ধে এফআইআর দায়ের করলেন তৃণমূল নেত্রী চন্দ্রিমা ভট্টাচার্য।'' বারাকপুরের সাংসদ অর্জুন সিংকে খুন করার পরিকল্পনা করেছিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি।'' মুকুল রায়ের এমন মন্তব্যের জন্যই চন্দ্রিমা ভট্টাচার্য ভাটপাড়া থানায় FIR দায়ের করলেন। চন্দ্রিমা-র অভিযোগ কোনওরকম প্রমাণ ছাড়াই মমতা ব্যানার্জির নামে এমন কথা বলা আসলে হিংসায় উস্কানি দেওয়া ছাড়া কিছু নয়। ''অবিলম্বে মমতা ব্যানার্জিকে গ্রেফতার করতে হবে। তিনিই অর্জুন সিংকে খুন করতে চেয়েছিলেন।'' বিধাননগরের প্রাক্তন মেয়র সব্যসাচী দত্তের গণেশ পুজো উদ্বোধনে গিয়ে এমনটাই দাবি তুলেছিলেন বিজেপি নেতা মুকুল রায়। কলকাতার বিভিন্ন সংবাদমাধ্যমে এমন খবর প্রকাশের পর চাঞ্চল্য ছড়ায়।

এদিকে, বিধানসভা ভোটের (Assembly Election) আগেই তৃণমূলের ঘর ভেঙে একের পর এক নেতামন্ত্রীরা যোগ দিচ্ছেন বিজেপি শিবিরে। ফুল পরিবর্তনের এইসময়ে ক্রমশই দানা বাঁধছে একের পর এক জল্পনা। কিছুদিন আগেই কলকাতার প্রাক্তন মেয়র শোভন চ্যাটার্জী দল পরিবর্তন করলেন। তৃণমূল বিধায়ক দেবশ্রী রায়কে নিয়েও চললো চরম জল্পনা। আরও পড়ুন-চাপে রেখে কুলভূষণ যাদবকে দিয়ে মিথ্যে বলিয়ে নিচ্ছে পাকিস্তান

এবার জল্পনা আরো দানা বাঁধলো বিধাননগরে প্রাক্তন মেয়র সব্যসাচী দত্তকে (Sabyasachi Dutta) নিয়ে। ভারতীয় জনতা পার্টির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ এবং মুকুল রায় উপস্থিত হয়েছিলেন তৃণমূল কংগ্রেস বিধায়ক সব্যসাচী দত্তের গণেশ পুজোয়। গতকাল ছিল গণেশ চতুর্থী। টানা ১০ দিন চলবে এই উৎসব।

তৃণমূল কংগ্রেস বিধায়ক সব্যসাচী দত্ত কলকাতায় তাঁর সল্টলেকের বাড়িতে গণেশ পুজোর আয়োজন করেন। সেই পুজোর উদ্বোধনে উপস্থিত ছিলেন রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ (Dilip Ghosh)। এছাড়াও উপস্থিত ছিলেন বিজেপি নেতা মুকুল রায় (Mukul Roy)। তবে কী জল্পনা এবার শেষ হতে চলেছে? সব্যসাচী দত্ত কী তাহলে বিজেপিতে যোগ দিতে চলেছেন?

এই বিষয়ে প্রশ্ন করায় তিনি বলেন, 'আমি সবাইকে ডেকেছি। পুজোয় আবার কোন ভাগ হয় নাকি?'। মুকুল রায় জানান, 'তৃণমূলের বিধায়ক এবং কাউন্সিলর হয়েও সব্যসাচী বুকের পাটা দেখিয়ে দিল।' দিলীপ ঘোষের গলায় অন্য সুর, কোনরকম জল্পনামূলক মন্তব্য না করে তিনি জানান, 'কার পুজো জানিনা, পুজো তাই উদ্বোধন করতে এসেছি'। সব্যসাচী দত্তের গণেশ পুজোয এসেছিলেন বিজেপির সর্বভারতীয় পর্যবেক্ষক অরবিন্দ মেনন এবং সর্বভারতীয় সম্পাদক রাহুল সিনহা।

প্রসঙ্গত, কিছুদিন আগেই শোভন চ্যাটার্জির দোল বদলের পরই তৃণমূলের প্রাক্তন বিধায়ক সব্যসাচী দত্তকে দিল্লিতে যাওয়া নিয়ে জল্পনা বাঁধে। দিলীপ ঘোষের সঙ্গে তাঁর সাক্ষাৎ করার কথাও জানা গিয়েছিলো বিজেপি সূত্রে। কিন্তু এই বিষয়ে তিনি কোনোভাবেই মুখ খোলেননি। এবার দেখার জল্পনার অবসান ঘটিয়ে তিনিও বিজেপির গেরুয়া শিবিরে যোগদান করেন কিনা।