Jai Sri Ram: অমর্ত্য সেন বাংলা সংস্কৃতির কী জানেন? আজ গোটা বাংলাই জয় শ্রী রাম বলছে, দিলীপ ঘোষ
দিলীপ ঘোষ (Photo Credit: ANI Twitter)

কলকাতা, ৬ জুলাই: শুক্রবার নোবেলজয়ী অর্থনীতিবিদ অমর্ত্য সেন (Amartya Sen) বলেছিলেন, জয় শ্রী রাম স্লোগান বঙ্গ সংস্কৃতিতে নেই। বিজেপি বিভেদের রাজনীতির জন্য এটিকে আমদানি করেছে। শনিবারই জয় শ্রী রাম প্রসঙ্গে অর্থনীতিবিদকে কটাক্ষ করলেন বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ (Dilip Ghosh:)। তিনি বলেন, “অমর্ত্য সেন বোধ হয় বাংলাকে চেনেন না। তিনি কী বাংলা ও ভারতীয় সংস্কৃতি সম্পর্কে কিছু জানেন? বহু গ্রামে জয় শ্রী রাম স্লোগান উচ্চারিত হয়। এখন তো গোটা বাংলা জয় শ্রী রাম (Jai Shree Ram) বলছে।” আরও পড়ুন- 'Jai Sri Ram' slogan: বঙ্গ সংস্কৃতিতে জয় শ্রী রামের জায়গা নেই, এটি বিজেপির আমদানি: অমর্ত্য সেন

লোকসভা ভোটে বিজেপি বাংলায় ভাল ফল করার পর থেকেই জয় শ্রী রাম স্লোগানে মুখরিত গোটা রাজ্য। মাথায় গেরুয়া ফেট্টি বেঁধে দলে দলে লোকজন রাস্তায় বেরিয়ে পড়ছে, মুখে জয় শ্রী রাম ধ্বনি। শুধু নিজেরা নয়, অন্যদেরও বলতে বাধ্য করছে। কয়েক দিন আগে রাজধানীতেই ঘটেছে ভয়াবহ ঘটনা। এক প্রখ্যাত শিক্ষাবিদকে রিকশো থেকে নামিয়ে জোর করে জয় শ্রী রাম বলিয়েছে দুষ্কৃতীর দল। না বললে খুনেরও হুমকি দেওয়া হয় বলে অভিযোগ। ইতিমধ্যেই স্লোগানের জেরে খুন হয়েছেন এক মুসলিম যুবক। তাঁকে পিটিয়ে মেরেছে বিজেপি সমর্থকরা। কলকাতাতে ট্রেনের মধ্যে মাদ্রাসা শিক্ষককে জয় শ্রী রাম বলতে বাধ্য করে বেধড়ক মারধরের ঘটনা ঘটেছে, এমনকী ওই শিক্ষককে ট্রেন থেকে ধাক্কা মেরে ফেলে দেয় হিন্দু সংহতির সদস্যরা। এসব ঘটনা একেবারে টাটকা। বলা বাহুল্য, দেশের কোথাও না কোথাও প্রতিদিনই জয় শ্রী রামের বলি হচ্ছে মানুষ। যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রেক্ষাগৃহে এই জয় শ্রী রাম স্লোগান প্রসঙ্গে মুখ খুলে আশঙ্কা প্রকাশ করেন প্রখ্যাত অর্থনীতিবিদ ডক্টর অমর্ত্য সেন। জানান, প্রহারের ভাষা এখন জয় শ্রী রাম। বাংলার মানুষ দুর্গা মায়ের নামে স্লোগান দিতে পারে জয় শ্রী রামের নামে নয়। কারণ বঙ্গ সংস্কৃতিতে এই স্লোগানের কোনও জায়গাই নেই। বিজেপি বিভেদের রাজনীতি ছড়াতেই বাংলায় এই স্লোগানকে নিয়ে এসেছে।

নোবেলজয়ী অর্থনীতিবিদের এই মন্তব্য শুনেই খেপে আগুন বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ। সাফ বলেন, “বাংলার সংস্কৃতি সম্পর্কে কিছউই জানেন না অমর্ত্য সেন, তিনি বাংলাকে চেনেন না।”