Cyclone Amphan: ঘুর্ণিঝড় আমফানের প্রভাবে মঙ্গলবার থেকে কলকাতা সহ ৭ জেলায় বৃষ্টির সম্ভাবনা
Representational Image (Photo Credits: PTI)

কলকাতা, ১৭ মে: তীব্র গতিতে ধেয়ে আসছে ঘুর্ণিঝড় আমফান (Cyclone Amphan)। আলিপুর আবহাওয়া অফিসের পূর্বাভাস, খুবই শক্তিশালী ঘুর্ণিঝড়ে (Cyclone) পরিণত হয়ে আমপান বুধবার পশ্চিমবঙ্গের সাগর দ্বীপ (Sagar) ও বাংলাদেশের হাতিয়া দ্বীপ এলাকা অতিক্রম করবে। আজ সকালে ঘুর্ণিঝড়টি দিঘা থেকে ১ হাজার ১৪০ কিলোমিটার দূরে অবস্থান করছে। আমফভানের প্রভাবে মঙ্গলবার থেকে কলকাতা সহ ৭ জেলায় বৃষ্টির (Rain) সম্ভাবনা। সঙ্গে থাকবে ঝোড়ো হাওয়া। ঘুর্ণিঝড়ের কারণে মত্‍স্যজীবীদের সমুদ্রে যেতে নিষেধ করা হয়েছে। যারা সমুদ্রে আছেন তাঁদের আজ রাতের মধ্যেই ফিরে আসতে বলা হয়েছে।

আবহাওয়া অফিস জানাচ্ছে., সোমবারই অতি ভয়ঙ্কর ঘূর্ণিঝড়ের রূপ নিতে পারে আমফান। সেই সঙ্গে বাঁক নিয়ে আছড়ে পড়তে পারে পশ্চিমবঙ্গের সাগরদ্বীপ এবং বাংলাদেশের হাতিয়া দ্বীপে। সোমবারের মধ্যেই আমফান আরও শক্তি সঞ্চয় করে অতি ভয়ঙ্কর ঘূর্ণিঝড়ের চেহারা নেবে। এই মুহূর্তে ওড়িশার পারাদ্বীপ থেকে ৯৯০ কিলোমিটার দূরে রয়েছে ঘূর্ণিঝড়টি। দিঘা থেকে তার দূরত্ব এক হাজার ১৪০ কিলোমিটার। অন্য দিকে, বাংলাদেশের খেপুপাড়া থেকে এক হাজার ২৬০ কিলোমিটার দূরে রয়েছে। উপকূলে আছড়ে পড়ার সময় অতি শক্তিশালী ঘূর্ণিঝড় আমফানের গতিবেগ থাকতে পারে ঘণ্টায় ১৮০ কিলোমিটার। আরও পড়ুন: Cyclone Amphan: আগামীকাল শক্তি বাড়াবে ঘূর্ণিঝড় 'আমফান', ৯৫ কিমি বেগে ধেয়ে আসছে বাংলার দিকে

এদিকে আমফানের মোকাবিলায় ওড়িশা এবং পশ্চিমবঙ্গ উপকূলে সতর্কতা জারি করা হয়েছে। সাগরদ্বীপ এবং সুন্দরবন এলাকায় সতর্কতামূলক ব্যবস্থা নিতে শুরু করেছে প্রশাসন। দুর্যোগ মোকাবিলায় প্রস্তুত রয়েছে জাতীয় বিপর্যয় মোকাবিলা বাহিনীও। ১৭টি দলকে ইতিমধ্যেই পশ্চিমবঙ্গ ও ওড়িশায় পাঠানো হয়েছে। NDRF-র ডিজি জানিয়েছেন, ওড়িশার ৭ জেলায় ১০ টি দল পাঠানো হয়েছে এবং ১০ টিরও বেশি স্ট্যান্ডবাইতে রয়েছে, পশ্চিমবঙ্গে ৬টি জেলায় ৭টি দল পাঠানো হয়েছে এবং ১০টিরও বেশি স্ট্যান্ডবাইতে রয়েছে। আমরা পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণ করছি এবং সমস্ত সংস্থার সাথে সমন্বয় করে কাজ করছি। পশ্চিমবঙ্গে দক্ষিণ ২৪ পরগনা, উত্তর ২৪ পরগনা, পূর্ব মেদিনীপুর, পশ্চিম মেদিনীপুর, হাওড়া এবং হুগলিতে মোতায়েন রয়েছে NDRF।