Bhatpara: হাইকোর্টের নির্দেশে আজ বেলা একটায় ফের ভাটপাড়া পুরসভায় আস্থাভোট
ভোট (File Photo)

ভাটপাড়া, ৭ জানুয়ারি: আজ মঙ্গলবার ফের আস্থাভোট ভাটপাড়া (Bhatpara) পুরসভায়। হাইকোর্টের (High Court) নির্দেশে এদিন বেলা একটায় ভাটপাড়া পুরসভায় আবারও আস্থা বৈঠক করতে হবে পুরপ্রধানকে, এমনটাই নির্দেশ দেওয়া হয়েছে কলকাতা হাইকোর্টের তরফে। গতকাল সোমবারই বিচারপতি দীপঙ্কর দত্ত ও বিচারপতি প্রতীকপ্রকাশ ব্যানার্জির ডিভিশন বেঞ্চ এই আস্থা বৈঠকে রাজ্য পুলিশকে নিরাপত্তার যাবতীয় ব্যবস্থা করার নির্দেশ দিয়েছে।

একই সঙ্গে খুবই অল্প সময়ের মধ্যে সব দলের কাউন্সিলরদের অবগত করার দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে পুর ও নগরোন্নয়ন দফতরকে। বৈঠকে হাজির থাকতে হবে জেলাশাসককেও (District Magistrate)। আস্থা বৈঠকে কী হল এবং সে ব্যাপারে তাঁর বক্তব্য মুখবন্ধ খামে চলতি সপ্তাহের বৃহস্পতিবার জেলাশাসককে হাইকোর্টে জমা দিতে হবে। এই সময়ের খবর অনুযায়ী, ডিভিশন বেঞ্চের নির্দেশের পর বেশ কয়েক মাসের টানাপোড়েনের পর ভাটপাড়া পুরবোর্ডের দখল কার হাতে থাকবে, এদিনই তা স্পষ্ট হওয়ার সম্ভাবনা। এর আগে ২ জানুয়ারি তৃণমূল ১৯-০ ফলে বিজেপি-র চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে অনাস্থা ভোটে জয়ী হয়। ওই বৈঠকের নোটিস চ্যালেঞ্জ করে সে দিনই হাইকোর্টে মামলা (Case) করেন বিজেপি কাউন্সিলররা। বিচারপতি অরিন্দম সিনহার সিঙ্গল বেঞ্চ সেই নোটিস খারিজ করে চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে হওয়া ওই অনাস্থা বৈঠক খারিজ করে দেয়। সেই রায় চ্যালেঞ্জ করে ডিভিশন বেঞ্চে আবেদন করে তৃণমূল। বিচারপতি দত্তের ডিভিশন বেঞ্চে তৃণমূলের হয়ে আইনজীবী কল্যাণ ব্যানার্জি সওয়ালে বলেন, বিজেপি নোটিস চ্যালেঞ্জ করলেও বৈঠকের সিদ্ধান্ত খারিজের আবেদন করেনি। অথচ সিঙ্গল বেঞ্চের রায়ে বৈঠকই বাতিল হয়েছে। ডিভিশন বেঞ্চের পর্যবেক্ষণ, গণতান্ত্রিক প্রক্রিয়ায় সংখ্যাগরিষ্ঠতা যার সঙ্গে থাকবে তিনিই ক্ষমতায় থাকবেন। যার সঙ্গে তা থাকবে না তাকে সরে যেতে হবে। ২ জানুয়ারির সভায় যাই হয়ে থাকুক, এটা স্পষ্ট যে চেয়ারম্যানের পক্ষে সংখ্যাগরিষ্ঠতা ছিল না। এই পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণের পরেই আদালত ২৪ ঘণ্টার মধ্যে নতুন করে আস্থা বৈঠক ডাকার নির্দেশ দেয়। চেয়ারম্যান ছাড়াও উত্তর চব্বিশ পরগনার জেলাশাসককে এ সংক্রান্ত পৃথক নোটিস ইস্যু করার নির্দেশ দেয় আদালত। সেইমত ফের এদিন অনুষ্ঠিত হচ্ছে ভাটপাড়ায় আস্থাভোট। আদালতের নির্দেশে আজ তলবি সভা পরিচালনা করবেন জেলাশাসক চৈতালি চক্রবর্তী। আরও পড়ুন: Mamata Banerjee: ৮ তারিখে ভারত বনধে মুখ্যমন্ত্রীর না, রুখে দেখাক; হুমকি দিলেন বাম নেতা শ্যামল চক্রবর্তী

দলের নির্দেশ মেনে এদিন বেলা বারোটা নাগাদ ৩৫ আসনের ভাটপাড়ার ১৯ জন তৃণমূল কাউন্সিলর একসঙ্গে পুরসভায় হাজির হয়ে অনাস্থার পক্ষে ভোটাভুটিতে অংশ নেবেন। ৩৫ জনের মধ্যে একজন কাউন্সিলর মারা গিয়েছেন। একজন জেলে (Jail), অর্জুন (Arjun Singh) সাংসদ হওয়ায় তাঁর আসনটি খালি। আর একজন বাম কাউন্সিলর রয়েছেন। হাইকোর্টের নির্দেশের পর অনাস্থা ভোটের প্রাথমিক প্রস্তুতিও সেরে ফেলেছে তৃণমূল। ঠিক হয়েছে, দুপুর একটায় ভোটাভুটি হওয়ার এক ঘণ্টা আগেই তৃণমূলের ১৯ জন কাউন্সিলর একসঙ্গে পুরসভায় ঢুকবেন। এদিকে, বিজেপি সূত্রে জানা গিয়েছে ভোটাভুটিতে বিজেপির কোনও কাউন্সিলর উপস্থিত থাকবেন না। রাজ্যে বিজেপির হাতে থাকা একমাত্র পুরসভা ভাটপাড়ায় চেয়ারম্যান অপসারণের দাবি তুলে অনাস্থা এনেছিল তৃণমূল। তবে অর্জুনগড়ে শাসক দল এখন অনেকটাই সাবধানী।