Firhad Hakim: পুরসভা ভোটের আগে শহরের 'জঞ্জাল-সাফ' মিশনে ফিরহাদ হাকিম, নিজের পাড়াতে মাতলেন চা-চর্চায়
Photo Source: Twitter/FIRHAD HAKIM

কলকাতা, ২৪ ফেব্রয়ারি: কিছুদিনের মধ্যেই রাজ্যে ১১০ পুরসভার ভোট (Corporation Election Kolkata 2020) । তার আগে আচমকাই রবিবার, ছুটির সকালে শহরের অলিতে গলিতে ঢুঁ মারলেন মেয়র ফিরহাদ হাকিম। মেয়রের সঙ্গী ছিলেন জঞ্জাল অপসারণ দফতরের দায়িত্বপ্রাপ্ত মেয়র পারিষদ দেবব্রত মজুমদার-সহ পুরকর্তারা (Kolkata Municipal Corporation) । দক্ষিণ কলকাতার বিস্তীর্ণ এলাকা ঘুরে দেখেন মেয়র। বেশ কিছু জায়গার পরিস্থিতি দেখে বিরক্তও প্রকাশ করেন ফিরহাদ হাকিম (Firhad Hakim)।

টালিগঞ্জ থানার সামনে ভাঙা বাস পড়ে থাকতে দেখে রেগে যান ফিরহাদ। ক্রেনের সাহায্যে বাসটিকে দ্রুত অন্য জায়গায় সরিয়ে নিয়ে যাওয়ার নির্দেশ দেন তিনি। মুদিয়ালি এলাকার জঞ্জাল সাফ করারও নির্দেশ দিয়েছেন তিনি। টালিগঞ্জে রেলের পরিত্যক্ত জমিতে বর্জ্য পদার্থ পড়ে থাকতে দেখে বিরক্তিও প্রকাশ করেন তিনি এবং ওই এলাকা দ্রুত পরিষ্কার করার কথা বলেন। সাদার্ন এভিনিউয়ের পাশে বর্জ্যপদার্থের স্তুপ হয়ে রয়েছে। তা সরানোরও নির্দেশ দিয়েছেন তিনি কলকাতা পুরসভাকে। শহরের স্বচ্ছতা পরীক্ষা-নিরীক্ষা করে দেখার পর পুরভোটকে মাথায় রেখে নিজের পাড়ায় নিখাদ আড্ডায় মাতলেন ফিরহাদ হাকিম। চেতলা। মেয়রের নিজের এলাকা। রবিবারের বিকেলে সেখানেই গল্প-আড্ডায় মেতে উঠলেন ফিরহাদ হাকিম। সেখানে স্থানীয় বাসিন্দাদের সঙ্গে চা খেতে খেতে তাদের সুযোগ-সুবিধার কথা শুনলেন ফিরহাদ হাকিম। আরও পড়ুন: WBJEE 2020 Result Date: উচ্চ মাধ্যমিকের পর পশ্চিমবঙ্গ জয়েন্ট প্রবেশিকা পরীক্ষার ফল ঘোষণা, বিস্তারিত জানুন wbjeeb.nic.in ওয়েবসাইটে

 ২০১৬ সালে কেন্দ্রীয় সরকার ‘কনস্ট্রাকশন অ্যান্ড ডেমলিশন ওয়েস্ট ম্যানেজমেন্ট রুল্‌স’ জারি করে। সমীক্ষা করে জানা গিয়েছিল, প্রতি বছর দেশে আড়াই কোটি টন বর্জ্য পদার্থ তৈরি হয়। সেই বর্জ্য পদার্থ থেকে বায়ুদূষণের মাত্রা ক্রমশ বাড়ছে দেশজুড়ে। এরপর ফের 'ডাস্ট মিটিগেশন' নির্দেশিকা জারি করা হয়। কিন্তু এত নিয়ম-নির্দেশিকাকে এড়িয়েই শহরের যত্রযত্র জমছে বর্জ্যপদার্থ।