TMC Working Committee Meeting: দলের সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক অভিষেক বন্দোপাধ্যায়, যুব সভানেত্রী সায়নী ঘোষ
অভিষেক বন্দোপাধ্যায়। (ফাইল ছবি)

কলকাতা, ৫ জুন: আজ তৃণমূলের ওয়ার্কিং কমিটির (TMC Working Committee Meeting) গুরুত্বপূর্ণ বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। বৈঠক শেষে তৃণমূলের সর্বভারতীয় স্তরে গুরুত্ব বাড়ানো হল অভিষেক বন্দোপাধ্যায়ের (Abhishek Banerjee)। যুব তৃণমূলের রাজ্য সভাপতি পদ থেকে ইস্তফা দিলেন অভিষেক। তাঁর জায়গায় নতুন সভানেত্রীর দায়িত্ব পেলেন সায়নী ঘোষ (Saayoni Ghosh)। দলের সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক হলেন অভিষেক বন্দোপাধ্যায়।

আজ দলের ওয়ার্কিং কমিটির বৈঠকেই অভিষেক পদত্যাপত্র জমা দেন। আসানসোল দক্ষিণের প্রার্থী হিসেবে দাঁড়িয়েছিলেন সায়নী ঘোষ। এছাড়াও, সায়নীকে সভানেত্রীর দায়িত্ব দেওয়ায় দলে মহিলাদের গুরুত্ব যথেষ্ট বাড়ল। জয়লাভ না করলেও রাজনীতির ময়দানে নেমেই যথেষ্ট পরিচিতি ও সুখ্যাতি লাভ করার উপহার হিসেবে মিলল নতুন এই পদ। ২০২৪-র লোকসভা নির্বাচনকে পাখির চোখ করে দলের এই রদবদল বলেই প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে। আরও পড়ুন, মুম্বইয়ে ১৬ বছরের নাবালিকাকে গণধর্ষণে গ্রেফতার ৬

অন্যদিকে, সর্বভারতীয় মহিলা তৃণমূলের সভাপতি হলেন কাকলি ঘোষ দস্তিদার। পরিচালক তথা বারাকপুরের বিধায়ক রাজ চক্রবর্তীকে রাজ্যের কালচারাল প্রেসিডেন্টের দায়িত্ব দেওয়া হল। তৃণমূল ট্রেড ইউনিয়নের জাতীয় সভানেত্রী হলেন দোলা সেন। রাজ্য সভাপতি হলেন ঋতব্রত বন্দোপাধ্যায়। রাজ্য তৃণমূলের সাধারণ সম্পাদক হলেন কুণাল ঘোষ। ৯টি জেলার সভাপতি পরিবর্তন হয়েছে।

আজ বৈঠকে সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়। গরু, কয়লা কেলেঙ্কারির মত কোনও দুর্নীতিতে যেন নাম না জড়ায়। নিজেদের ভাবমূর্তি স্বচ্ছ রাখতে হবে। লালবাতি গাড়ি সর্বক্ষণ ব্যবহার করা চলবে না। নেতৃত্বকে আরও কড়া হতে হবে, আরও একাধিক সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।