UEFA EURO 2020: ইউরোয় গ্রুপ লিগে এই দশটি ম্যাচ একদম মিস করবেন না

১২ জুন, শনিবার, রাত সাড়ে ১২টা থেকে শুরু হচ্ছে ইউরোপের পয়লা নম্বর দেশভিত্তিক ফুটবল টুর্নামেন্ট উয়েফা ইউরো ২০২০ (UEFA EURO 2020)। গত বছর করোনার দাপটের কারণে হতে না পারায়, চলতি বছর হচ্ছে ইউরো কাপ। তাই ২০২১ সালেও হলেও ইউরো কাপ ২০২০-নামেই ডাকা হচ্ছে। ২৪টি দেশকে ৬টা গ্রুপে ভাগ করে হচ্ছে এবারের ইউরো। নক আউট পর্ব থেকে তো সব ম্যাচে মাস্ট ওয়াচ, কিন্তু তার আগে গ্রুপ লিগেও অন্তত দশটা ম্যাচ এমন থাকছে যা কখনমই মিস করা ঠিক হবে না। জানুন তেমনই দশটা ম্যাচটা কী কী-- আরও পড়ুন: ইউরো কাপের আগে রোনাল্ডো-ব্রুনোর দাপট, আন্তর্জাতিক প্রীতি ম্যাচে ধরাশায়ী ইজরায়েল

গ্রুপ লিগের এই দশটা ম্যাচ একদম মিস করবেন না:

১) ইতালি বনাম তুরস্ক (Italy vs  Turkey) ১২ জুন, রাত সাড়ে ১২টা): এবারের ইউরোয় উদ্বোধনী ম্যাচ এটাই। ২০১৮ বিশ্বকাপের মূলপর্বে খেলার যোগ্যতা পায়নি ইতালি। চারবার বিশ্বকাপজয়ী দেশের কাছে যা ছিল খুবই লজ্জার ব্যাপারে। ২০২০ ইউরোকে ঘুরে দাঁড়ানোর টুর্নামেন্ট হিসেবে দেখছে আজুরিরা। অন্যদিকে, তুরস্কও ২০১৮ বিশ্বকাপের মূলপর্বে যোগ্যতা অ্জনে ব্যর্থ হয়। টাফ ফুটবল খেলা তুরস্কের কাছেও এবারের ইউরো ঘুরে দাঁড়ানোর। ডিফেন্সে শক্তিশালী এই দলের লড়াই জমজমাট হতে চলেছে।

২) ইংল্যান্ড বনাম ক্রোয়েশিয়া (England vs Croatia) (১৩ জুন, সন্ধ্যা সাড়ে ৬টা): ২০১৮ রাশিয়া বিশ্বকাপের সেমিফাইনালে মুখোমুখি হয়েছিল দুই দেশ। ম্যাচের ৯০ মিনিট খেলার ফল ১-১ হওয়ার পর, ম্যাচের ফয়সালা হয় এক্সট্রা টাইমের গোলে। ম্যাচের ১০৯ মিনিটের মাথায় মান্দুভিচের গোলে প্রথমবার বিশ্বকাপের ফাইনালে উঠেছিল ক্রোয়েশিয়া। ১৯৬৬-র পর প্রথমবার বিশ্বকাপ খেলার স্বপ্নভঙ্গ হয়েছিল ইংল্যান্ড। এবার ইংল্যান্ডের কাছে সেই হারের ক্ষতে প্রলেপ লাগানোর সুযোগ। ক্রোটরা চাইবেন আরও একবার জিততে।

৩) নেদারল্যান্ডস বনাম ইউক্রেন (১৪ জুন, রাত সাড়ে ১২টা): বিশ্ব ফুটবলে নেদারল্যান্ডস মানেই কমলা ঝড়। কমলা ঝড় বনাম ইউক্রেনের মিডফিল্ডের চোরা বাতাস। ম্যাচ জমে যাবে।

৪) স্পেন বনাম সুইডেন (১৫ জুন, রাত সাড়ে ১২টা): একবার জোরদার ফুটবল হবে। স্কিল বনাম গতি-শক্তির লড়াই দেখা যেতে পারে।

৫) জার্মানি বনাম ফ্রান্স (১৬ জুন, রাত সাড়ে ১২টা): গ্রুপ অফ ডেথের ম্যাচ। এই গ্রুপের অপর দুটি দল পর্তুগাল ও হাঙ্গেরি। এই ম্যাচে জিততেই হবে দুটি দলকে, এই শর্তে মাঠে নামবে বিশ্ব ফুটবলের শক্তিধর এই দেশ। বিশ্বকাপ চ্যাম্পিয়ন হিসেবে নামছে ফ্রান্স। আর গত বিশ্বকাপে গ্রুপ লিগ থেকে বিদায়ের লজ্জা মাথায় নিয়ে নামছে জার্মানি। ২০১৪ ও ২০১৮ বিশ্বকাপের চ্যাম্পিয়ন দুই দেশের লড়াই না দেখলে মিস করবেন অনেক ডুয়েল।

৬) ডেনমার্ক বনাম বেলজিয়াম (১৭ জুন, রাত সাড়ে ১২টা): ইউরোপের শক্তিধর এই দুই দেশকে আন্ডার অ্যাচিভার হিসেবে ধরা হয়। বিশ্ব ফুটবলে ডিনামাইট হিসেবে খ্যাত হলেও ডেনমার্কের বড় সাফল্য নেই। বেলজিয়ামেও তাই। তবে গত বিশ্বকাপে ব্রাজিলকে কোয়ার্টার ফাইনালে ছিটকে দেওয়া বেলজিয়াম এবার ইউরোয় চমকের আশায়। ডেনমার্ক চাইছে এবার প্রমাণ করতে। এই ম্যাচ দেখতেই হবে।

৭) পর্তুগাল বনাম জার্মানি (১৯ জুন, রাত সাড়ে ৯টা): গতবারের চ্যাম্পিয়ন হিসেবে নামছে ক্রিশ্চিয়ানো রোনাল্ডো। জার্মানির সেখানে সব ব্যর্থতা ঝেড়ে ফিরে আসার লড়াই। গ্রুপ অফ ডেথের এই ম্যাচ গ্রুপের ভাগ্য নির্ধারণ করে দেবে।

৮) ইংল্যান্ড বনাম স্কটল্যান্ড (১৯ জুন, সন্ধ্যা সাড়ে ১২টা): ধারেভারে ইংল্যান্ড অনেক এগিয়ে। কিন্তু ব্রিটিশ আর স্কটিশরা মুখোমুখি হলেই সে ম্যাচ জমে যায়।

৯) ইতালি বনাম ওয়েলশ (২০ জুন, রাত সাড়ে ৯টা): হ্যারি কেন বনাম গ্যারেথ বেল। প্রতিবেশী দুই দেশের ম্যাচ জমে যাবে।

১০) ফ্রান্স বনাম পর্তুগাল (২৪ জুন, রাত সাড়ে ১২টা): বিশ্ব চ্যাম্পবিয়ন ফ্রান্স বনাম ইউরো চ্যাম্পিয়ন। কন্তে বনাম রোনাল্ডো। গ্রুপ অফ ডেথের শেষ ম্যাচ। খেলা জমে যাবে।

(প্রতিটি ম্যাচ সরাসরি দেখা যাবে সোনি টেন টু-থ্রি চ্যানেলে। সোনি লিভ অ্যাপের মাধ্যমে দেখা যাবে সব ম্যাচ।)