Euro 2020: ইতালি না স্পেন, ফেভারিট কে! জানুন ফর্ম গাইড, রেকর্ড, কীভাবে দেখবেন সেমিফাইনাল

লন্ডন,৭ জুলাই: আজ রাতে ইউরো কাপের প্রথম সেমিফাইনালে কাঁটে কী টক্কর। ইউরোপের ফুটবলের শক্তিধর দুই দেশ ইতালি ও স্পেন মুখোমুখি ফাইনালে ওঠার লড়াইয়ে। ২০১২ ইউরো কাপের ফাইনালে ইতালিকে হারিয়েই চ্যাম্পিয়ন হয়েছিল স্পেন। কিয়েভে হওয়া সেই ফাইনালে স্পেন ৪-০ গোলে হারিয়েছিল ইতালিকে।  তারপরের ইউরোয় কোয়ার্টার ফাইনালে অবশ্য ইতালি ২-০ গোলে স্পেনকতে হারিয়ে শোধ তোলে। ইংল্যান্ডের ঐতিহ্যবাহী ওয়েম্বলি স্টেডিয়ামে অবশ্য আজ অবশ্য অন্য লড়াই। আজ জিতলেই, রবিবার ওয়েম্বলিতে মেগা ফাইনালে খেলার সুযোগ। স্পেন এর আগে তিনবার ইউরো কাপ জিতেছে। যেখানে ইতালি এর আগে মাত্র একবার, ১৯৬৮ ইউরোয় চ্যাম্পিয়ন হয়।

আজ এই সেমিফাইনালে ফেভারিট কারা?

টুর্নামেন্টের এই পর্যায়ে এসে ফেভারিট বাছা খুব কঠিন কাজ। সব দলই চাইবে আগের দুর্বলতা ঢেকে মরিয়া হয়ে কাপ জিততে। তবে ফর্মের বিচারে ইতালিকে এগিয়ে রাখতেই হচ্ছে। গ্রুপে তিনটি ম্যাচেই প্রতিপক্ষকে উড়িয়ে জেতার পর, প্রি কোয়ার্টার ফাইনালে অস্ট্রিয়ার বিরুদ্ধে অতিরিক্ত সময়ের গোলে ২-১ জেতে ইতালি। আর কোয়ার্টার ফাইনালে ফিফা ক্রম তালিকায় শীর্ষে থাকা বেলজিয়ামকে ২-১ গোলে হারায় আজুরিরা। টানা ৩৩ ম্যাচে অপরাজিত ইতালি। গত ১৪টা ম্যাচে মাত্র দুটি গোল খেয়েছে নীল জার্সির দল।

অন্যদিকে, গ্রুপে দুটো ম্যাচ ড্র করে নক আউটে কোনও ম্যাচই নির্ধারিত সময়ে জিততে পারেনি স্পেন। সুইজারল্যান্ডের বিরুদ্ধে গত তিনবারের মধ্যে দু বার ইউরো চ্যাম্পিয়ন স্পেন জেতে টাইব্রেকারে। আর প্রি কোয়ার্টার ফাইনালে ক্রোয়েশিয়ার বিরুদ্ধে রুদ্ধশ্বাস ম্যাচে স্পেন জিতেছিল অতিরিক্ত সময়ের খেলায় ৫-৩ গোলে। চলতি ইউরোয় নির্ধারিত ৯০ মিনিটে মাত্র একটা ম্যাচে জেতে স্পেন (স্লোভাকিয়ার বিরুদ্ধে ৪-০ গোলে)। গ্রুপের ম্যাচে স্পেনের খেলা দেখে মনে হচ্ছিল গোল করার লোকের অভাব, আবার নক আউটে তাদের দেখে রক্ষণের দুর্বলতা ধরা পড়ছে। সেই হিসেবে দেখলে ইতালি ফেভারিট হিসেবেই নামছে। তবে স্পেনের সব সময়ই নক আউটে ভাল খেলার সুনাম আছে।

মুখোমুখি রেকর্ড

আজ পর্যন্ত ইতালি-স্পেন মোট ৩৩ বার মুখোমুখি হয়েছে। তার মধ্যে ১২ বার জিতেছে স্পেন, ৯বার জিতেছে ইতালি, আর ১২টি ড্র হয়। এবার নিয়ে টানা চারটে ইউরোয় নক আউট রাউন্ডে মুখোমুখি ইতালি-স্পেন। তার মধ্যে শেষ দুটি সাক্ষাতে জিতেছে স্পেন। ২০১২ ইউরোয় ফাইনালে ৪-০ জয়ের পর, ২০১৬ ইউরোর প্রি কোয়ার্টার ফাইনালে ২-০ জেতে ইতালি। এর আগে ২০০৮ ইউরোর কোয়ার্টার ফাইনালে নির্ধারিত সময় খেলা গোলশূন্য থাকার পর টাইব্রেকারে জেতে স্পেন।

কটা থেকে শুরু হবে এই ম্যাচ

আজ রাত ভারতীয় সময় সাড়ে ১২টা থেকে শুরু হবে ম্যাচ

টিভিতে কীভাবে দেখা যাবে ম্যাচ

সোনি টেন স্পোর্টসের বিভিন্ন চ্যানেল যেমন সোনি টেন ওয়ান, সোনি টেন টু-য়ের এসডি ও এইটডি-তে সরাসরি দেখা যাবে ম্যাচ।

অনলাইনে কীভাবে দেখা যাবে এই সেমিফাইনাল

সোনি লিভ অ্যাপের মাধ্যমে সরাসরি অনলাইনে দেখা যাবে ম্যাচ।