Thomas Cup 2024: চিনের কাছে হেরে কোয়ার্টার ফাইনালে শেষ ভারতের থমাস কাপের সফর
Lakshya Sen (Photo Credit: @Sportskeeda/ X)

বৃহস্পতিবার (২ মে) চীনের চেংদুতে ডিফেন্ডিং চ্যাম্পিয়নরা চিনের কাছে ১-৩ ব্যবধানে হেরে কোয়ার্টার ফাইনালেই শেষ করেছে ভারতের থমাস কাপের (Thomas Cup 2024) অভিযান। দু'বছর আগে ব্যাঙ্ককে জেতা মর্যাদাপূর্ণ দলগত টুর্নামেন্ট বিজয়ীদের হতাশাজনক ফলাফলে একমাত্র বিজয়ী ছিলেন লক্ষ্য সেন। বুধবার 'সি' গ্রুপের শেষ ম্যাচে ইন্দোনেশিয়ার কাছে ১-৪ ব্যবধানে হেরে যাওয়াটাই ভারতের জন্য সতর্ক সংকেত ছিল। ইন্দোনেশিয়ার বিপক্ষে হারের ২৪ ঘণ্টারও কম সময়ের মধ্যে ভারত কোর্টে নেমেছিল, এদিকে চীন তাদের কোয়ার্টার ফাইনালের আগে একদিনের বিরতি পেয়েছিল। কোয়ার্টার ফাইনাল টাইয়ের শেষ ম্যাচে চিনা তারকাদের তীব্রতা সামলাতে না পারায় ভারতীয় দলের মানসিক ক্লান্তি যেন স্পষ্ট হয়ে উঠেছিল। বিশ্বের দুই নম্বর শি ইউকির কাছে হেরে যান ভারতের শীর্ষ সিঙ্গলস শাটলার এইচএস প্রণয়। Thomas & Uber Cup 2024: জাপানের কাছে হেরে উবার কাপে কোয়ার্টারফাইনাল থেকে বিদায় নিশ্চিত ভারতীয় মহিলা দলের

প্রথম গেমে জয় দিয়ে দারুণ শুরু করলেও পুরো প্রতিযোগিতায় নিজের তীব্রতা ধরে রাখতে পারেননি প্রণয়। এক ঘণ্টা ৬ মিনিটের লড়াইয়ে ২১-১৫, ১১-২১, ১৪-২১ ব্যবধানে হেরে যান প্রণয়। ইন্দোনেশিয়ার বিরুদ্ধে টাইয়ে হেরে কোয়ার্টার ফাইনালে ওঠা সাত্ত্বিকসাইরাজ রানকিরেড্ডি ও চিরাগ শেট্টি তিন ম্যাচে বিশ্বের এক নম্বর লিয়াং ওয়েই কেং ও ওয়াং চ্যাংয়ের কাছে হেরে যান। দু'বছর আগে টমাস কাপ জয়ে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখা ভারতীয় ডাবলস তারকারা হেরেছেন ১৫-২১, ২১-১১, ১২-২১ ব্যবধানে। সাত্ত্বিক এবং চিরাগের জন্য টুর্নামেন্ট ছিল হতাশাজনক, ভারতের অলিম্পিক পদকের ফেভারিট এই জুটি ইন্দোনেশিয়া এবং চীনের বিরুদ্ধে তাদের ডাবলসে হেরেছে।

লক্ষ্য সেন বিশ্বের ৬ নম্বর লি শি ফেংকে হারিয়ে ভারতের আশা বাঁচিয়ে রাখেন। লক্ষ্য প্রথম গেমে ১৩-২১ ব্যবধানে হেরে গেলেও তিনি লড়াই করে এক ঘণ্টা ১০ মিনিটের মধ্যে ম্যাচ জিতে নেন। লক্ষ্য দ্বিতীয় গেমে ২১-৮ ব্যবধানে জিতে নিজের পক্ষে মোমেন্টাম ঘুরিয়ে দেন এবং আর পিছনে ফিরে তাকাননি। তবে ভারত কোয়ার্টার ফাইনালের লড়াইয়ে ধ্রুব কপিলা এবং সাই প্রতীক ৩৪ মিনিটের মধ্যে হি জি টিং এবং রেন জিয়াং ইউয়ের বিপক্ষে ১০-২১, ১০-২১ ব্যবধানে পরাজিত হন। ভারত কিদাম্বি শ্রীকান্তের পরিবর্তে চূড়ান্ত সিঙ্গলসের জন্য কিরণ জর্জকে বেছে নিয়েছিল। তবে কিরণের প্রয়োজন পড়েনি কারণ চীন চতুর্থ ম্যাচে ৩-১ ব্যবধানে জয় নিশ্চিত করে।