Pele Pays Tribute to Maradona: ‘আশা রাখি একদিন আকাশে আমরা ফুটবল খেলব’, মারাদোনার প্রয়াণে শোকস্তব্ধ পেলে
পেলের সঙ্গে মারাদোনা (Photo Credits: Social Media)

রিও ডি জেনেইরো, ২৬ নভেম্বর: ২০২০-র বিষে সবই ঝরে যাচ্ছে। মাত্র ৬০ বছরেই চলে গেলেন ফুটবলের রাজপুত্র দিয়েগো আর্মান্দো মারাদোনা (Diego Maradona)। গত ১ অক্টোবরে ৬০ বছরে পড়েছেন এই কিংবদন্তী ফুটবলার। বুয়েনাস আইরেজে এক হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ছিলেন তিনি। মাথায় রক্ত জমাট বেঁধে গিয়েছিল। অস্ত্রোপচারের পর সপ্তাহ দুয়েক সেখানে ভর্তি ছিলেন। বুধবার ভারতীয় সময় রাত দশটা নাগাদ শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন বিংশ শতাব্দীর আলোড়ন ফেলে দেওয়া ফুটবলার দিয়েগো আর্মান্দো মারাদোনা। তাঁর মৃত্যুতে শোকে পাথর গোটা দুনিয়া। ফুটবল বিশ্ব, ক্রিকেট দুনিয়া, হলিউড, বলিউড, বাম রাজনীতির জগতে শোকের ছায়া। চিরকাল সাম্রাজ্যবাদের বিরুদ্ধে ঘৃণা ছুঁড়ে দেওয়া সমাজবাদী মারাদোনা যে এক অমোঘ টানের নাম।

মারাদোনার মৃত্যুতে শোক বিহ্বল ফুটবলের মহারাজ পেলে। টুইট বার্তায় লিখলেন, “দুঃসংবাদ, প্রিয় বন্ধুকে হারালাম। বিশ্ব হারালো এক কিংবদন্তীকে। অনেক কিছু বলার আছে। তবে এখন এটুকুই বলব, ঈশ্বর ওঁর পরিবারকে শক্তি দিন। আশা রাখি একদিন আমরা আকাশে এক সঙ্গে ফুটবল খেলব।” ১ অক্টোবর মারাদোনার জন্মদিনে পেলে শুভেচ্ছা বার্তায় লিখেছিলেন, “তোমার যাত্রা দীর্ঘ হোক। তোমার মুখে লেগে থাকুক অনন্ত হাসি, তাই আমাদের অনুপ্রাণীত করুক।” আর পেলের ৮০-তম জন্মদিনে ফুটবলের রাজপুত্র লিখেছিলেন, “রাজার প্রতি রইল শ্রদ্ধার্ঘ্য।” মারাদোনা না পেলে কে বড়? এই নিয়ে গোটা বিশ্বে কম বিতর্ক নেই। কিন্তু রাজা ও রাজপুত্র সেসব আমল না দিয়ে চুটিয়ে উপভোগ করেছেন বিশ্বজোড়া জনপ্রিয়তা। দুজনের মধ্যে বয়সের ফারাক ২০ বছরের। কিন্তু ২০০০ সালে ফিফা এই দুই কিংবদন্তীকেই বিশ শতকের সেরা ফুটবলারের সম্মান দিয়েছে। আরও পড়ুন-Diego Maradona Dies: হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে প্রয়াত কিংবদন্তি ফুটবলার দিয়েগো মারাদোনা

মারাদোনা খেলোয়াড় হিসেবে যতটা সফল, কোচ হিসেবে ততটাই ব্যর্থ। অন্ধকারে তলিয়ে গিয়েও ফিনিক্স পাখির মতো নিজেকে ফিরিয়ে এনেছিলেন লাইমলাইটে। হাতের মাসলে চে গেভারার ট্যাটু। পায়ের কাফ মাসলে উঁকি দিচ্ছেন ফিদেল কাস্ত্রো। উগো শাভেজ যাঁর প্রিয়বন্ধু। সেই মারাদোনা যে ফুটবল পাগল বাঙালির আদরের ঐশ্বর্য হবেন তা তো বলাই বাহুল্য। মারাদোনার প্রয়াণে তা বাংলার ঘরে ঘরে শোকের ছায়া।