IND vs NZ Pitch Change: মুম্বইয়ে শেষ মুহূর্তে  পিচ পরিবর্তন! ওয়াংখেড়েতে সেমিফাইনালের আগেই বিতর্কে বিসিসিআই
Rohit Inspecting Pitch (Photo Credit: Fox Cricket/ X)

আজকে ২০২৩ সালের ওয়ানডে বিশ্বকাপের প্রথম সেমি-ফাইনাল ভারত বনাম নিউজিল্যান্ডের ম্যাচটি মুম্বইয়ে একটি ব্যবহৃত পিচে খেলা হবে। ESPNcricinfo-এর খবর অনুসারে, সেমি-ফাইনাল ম্যাচটি প্রথমে ওয়াংখেড়ে স্টেডিয়ামের পিচ ব্লকের সেন্ট্রাল স্ট্রিপ পিচ ৭-এ হওয়ার কথা ছিল। পিচ ৭ একটি তাজা পিচ যা বিশ্বকাপের লিগ পর্বে ব্যবহৃত হয়নি। তবে খেলাটি হঠাৎই পিচ ৬-এ স্থানান্তরিত করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয় যেখানে ইতিমধ্যে টুর্নামেন্টের দুটি ম্যাচ আয়োজন করা হয়েছে। যেখানে ২১ অক্টোবর ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে দক্ষিণ আফ্রিকা ২২৯ রানের জয় এবং ২ নভেম্বর শ্রীলঙ্কার বিরুদ্ধে ভারত ৩০২ রানের জয় লাভ করে। বিশ্বকাপের আগে ৬-৮-৬-৮-৭ নম্বর অনুযায়ী ওয়াংখেড়েতে পিচ রোটেশনের পরিকল্পনা করা হয় কিন্তু সেটি শেষ মুহূর্তে পাল্টে ৬-৮-৬-৮ করে দেওয়া হয়। IND vs NZ, CWC Semi-Final 2023 Live Streaming: বিশ্বকাপ সেমিফাইনালের মুখোমুখি ফের ভারতের সামনে কিউইরা, ইতিহাস গড়বে কারা; সরাসরি দেখবেন যেখানে

বিশ্বকাপের জন্য আইসিসির প্লেয়িং কন্ডিশন অনুযায়ী, যে কোনও ম্যাচের আগে পিচ নির্বাচন ও প্রস্তুতির জন্য সংশ্লিষ্ট 'গ্রাউন্ড অথরিটি' দায়বদ্ধ। এক্ষেত্রে মুম্বই ক্রিকেট অ্যাসোসিয়েশন (এমসিএ) সেই দায়িত্বে রয়েছে। আইসিসির একজন স্বতন্ত্র পিচ পরামর্শক অ্যান্ডি অ্যাটকিনসনও (Andy Atkinson) রয়েছেন, যিনি স্থানীয় মাঠকর্মীদের পাশাপাশি কাজ করছেন। তবে Daily Mail-এর খবরে বলা হয়েছে, পুরো বিশ্বকাপ জুড়ে আগাম চুক্তিবদ্ধ পরিকল্পনার পরিবর্তনে হতাশ হয়ে পড়েছেন অ্যাটকিনসন এবং ফাঁস হওয়া একটি ইমেইলে তিনি অনুমান করেছেন যে রবিবার আহমেদাবাদে ফাইনালের পিচটি টিম ম্যানেজমেন্ট এবং / অথবা হোম নেশন বোর্ডের শ্রেণিবিন্যাসের অনুরোধে নির্দিষ্টভাবে বেছে নেওয়া হয়েছে এবং তাদের শর্ত অনুসারে প্রস্তুত করা হয়েছে।

এদিকে, আইসিসির কোনও শর্ত নেই যে, নতুন পিচে অবশ্যই নকআউট ম্যাচ খেলতে হবে। তাদের পিচ এবং আউটফিল্ড মনিটরিং প্রক্রিয়ার একমাত্র শর্ত হল, 'যে ভেন্যুগুলিতে ম্যাচ আয়োজনের দায়িত্ব বরাদ্দ করা হয়েছে, সেই ম্যাচের জন্য তারা সম্ভাব্য সেরা পিচ এবং আউটফিল্ড পরিস্থিতি উপস্থাপন করবে।' চার বছর আগে ইংল্যান্ডে অনুষ্ঠিত ২০১৯ ওয়ানডে বিশ্বকাপের সেমিফাইনালে ওল্ড ট্র্যাফোর্ড ও এজবাস্টনের নতুন পিচে দুটি ম্যাচই হয়েছিল। কিন্তু গত বছর টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের দুটি সেমিফাইনালই হয়েছে ব্যবহৃত পিচে হয় যার মধ্যে একটি হল অ্যাডিলেড ওভাল, অন্যটি হল সিডনি ক্রিকেট গ্রাউন্ড।