Rishabh Pant or Wriddhiman Saha: সিডনিতে তৃতীয় টেস্টের শেষদিনে পন্থের ঝোরো ইনিংস, ব্রিসবেনের ২২ গজে ঋষভ ও ঋদ্ধিমানকে দেখতে চায় অনুরাগীরা
ঋষভ পন্থ ও ঋদ্ধিমান সাহা (Photo Credits: Twitter)

ভারত বনাম অস্ট্রেলিয়া তৃতীয় টেস্টে জমিয়ে দিলেন ঋষভ পন্থ। মাত্র তিন রানের জন্য হাতছাড়া হল সেঞ্চুরির সুযোগ। অনুরাগীরা প্রথমেই ভারতীয় ক্রিকেট প্রশাসনের কাছে অনুরোধই রেখেছিল যে অস্ট্রেলিয়ায় টেস্ট সিরিজে দলে বিশেষজ্ঞ ব্যাটসম্যান হিসেবে রাখা হোক ঋষভ পন্থকে (Rishabh Pant) একইভাবে ঋদ্ধিমান সাহাকে রাখা হোক উইকেট রক্ষক হিসেবে। ঋষভ পন্থের ঝোড়ো ব্যাটিংয়ের জেরে ট্রোলিংয়ের শিকার তাঁর আইপিএল দল দিল্লি ক্যাপিটালসের কোচ রিকি পন্টিং। প্রাক্তন অজি ব্যাটসম্যান বলেছিলেন দ্বিতীয় ইনিংসে ভারতের স্কোর দুশো রানের গণ্ডিও টপকাতে পারবে না। কিন্তু পন্থের ব্যাটিং তাণ্ডবে লাঞ্চের আগেই ২০০-পেরিয়ে যায় ভারত। তারপরই শুরু হয় পন্টিংয়ের নিয়ে ট্রোল। যে মশকরায় নাম লেখান বীরেন্দ্র সহবাগও।

ভারত বনাম অস্ট্রেলিয়া তৃতীয় টেস্টে ১২টি চার ও ৩টি ছক্কায় ৯৭ রানের ঝোড়ো ইনিংস খেললেন ঋষভ পন্থ। পরপর তিনটি চার মারার পর ফের আরও একটি বাউন্ডারি মারতে গিয়ে নাথান লায়নের বলে পয়েন্টে ক্যাচ তুলে বসেন পন্থ। তৃতীয় টেস্টের শেষদিনে অধিনায়ক অজিঙ্কে রাহানে মাত্র চার রান সংগ্রহ করতে না করতেই পাভ্যিলিয়নে ফিরে গিয়েছেন। তারপর প্রায় খাদের কিনারে পৌঁছে গিয়েও ঝোরো ইনিংস খেলে ভারতীয় দলকে লড়াইয়ে জায়গায় দাঁড় করিয়ে দিয়েছেন ঋষভ পন্থ। এদিকে কনুইয়ে চোট পাওয়ায় দ্বিতীয় ইনিংসে উইকেট রক্ষকের ভূমিকায় দেখা যায়নি ঋষভ পন্থকে। তবে এদিন রাহানে সকাল সকাল সাজঘরে ফিরতেই উপরের দিকে ব্যাট করতে পাঠানো হয় তাঁকে। ফার্স্ট স্লিপে একবার মাত্র স্টিভ স্মিথের হাতে ক্যাচ দিতে দিতে কপাল জোরে বেঁচে যান পন্থ। তারপর আর পিছনে ফিরে তাকাতে হয়নি। আরওপড়ুন-Coronavirus Cases In India: কমল করোনায় দৈনিক মৃত্যুর সংখ্যা, ১৬ তারিখে শুরু টিকাকরণ প্রক্রিয়া

দিনের প্রথম সেশনেই পন্থের দাপটে ১ উইকেট হারিয়ে ১০৮ রান তোলে ভারত। লাঞ্চের আগেই ভারতের স্কোর পৌঁছে যায় ৩ উইকেটে ২০৬ রানে। পূজারার সঙ্গে জুটি বেঁধে দারুণ খেললেও ছক্কা হাঁকিয়ে শতরান করতে গিয়ে আউট হলে ঋষভ পন্থ। এরপর হ্যাজলউডের নিচু বলে অজিদের হাতে উইকেট তুলে দিয়ে প্যাভিলিয়নে ফিরে গেলেন চেতেশ্বর পূজারা। এই ঘটনার সঙ্গে সঙ্গেই তৃতীয় টেস্টে ভারতীয় দলের জয়ের শেষ পেরেকটা যেন পোঁতা হয়ে গেল। এখন যা পরিস্থিতি তাতে অস্ট্রেলিয়াকে ফেভারিট ধরতে হবে। তবে এদিন পন্থের লড়াই ছিল চোখে পড়ার মতো।