Kenya: মর্গে চিৎকার করে বেঁচে উঠলেন 'মৃত ব্যক্তি', তারপর?
মর্গ (Photo credit: Getty image)

কেনিয়া, ২৯ নভেম্বর: মর্গে (Morgue) বেঁচে উঠলেন 'মৃত ব্যক্তি'। চিকিত্সার এ কেমন নিদর্শন? যা দেখে অবাক সকলেই। কিন্তু তা নয়, সুচিকিৎসার ফলে বেঁচে ওঠেননি ওই মৃত ব্যক্তি। চিকিৎসার অবহেলায় জীবন্ত ব্যক্তিকে মৃত বলে ঘোষণা করেছিলেন। ব্যক্তির শরীর থেকে রক্ত ​​সংরক্ষণ করার জন্য রক্ত ড্রেন করার প্রস্তুতি নিচ্ছিল হাসপাতাল কর্মীরা, তখনই আচমকা চিৎকার করে ওঠেন ব্যক্তি।

টাইমস নাও-র খবর অনুযায়ী, ঘটনাটি ঘটেছে, কেনিয়ার (Kenya) এক হাসপাতালে। ৩২ বছর বয়সী ওই ব্যক্তির নাম পিটার কিগেন। পিটারের পরিবার একটি স্থানীয় সংবাদমাধ্যমকে জানায়, পেটে ব্যাথার জন্য বেশ কিছুদিন ধরেই ভুগছিলেন তিনি। অস্বাভাবিক ব্যাথা হওয়ায় তৎক্ষণাৎ কেরিচোর কাপ্লাটেট হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। ব্যক্তির ভাইয়ের দাবি, হাসপাতালের নার্স তার দাদাকে মৃত বলে ঘোষণা করেন। মর্গে নিয়ে যাওয়ার আগে একটি পত্র তাদের হাতে তুলে দেন।  আরও পড়ুন, 'বুকের পাটা থাকলে নাম নিয়ে আক্রমণ করুন', 'ভাইপো' মন্তব্যের পাল্টা জবাব অভিষেক ব্যানার্জির

এরপরই হাসপাতালের কর্মীরা সঙ্গে সঙ্গে ব্যক্তির রক্ত সংরক্ষণের জন্য প্রস্তুতি নিতে শুরু করে, এমন সময়ই কর্মীরা বুঝতে পারে ব্যক্তি এখনও বেঁচে রয়েছেন। কিছুক্ষণ পরেই ব্যক্তি জ্ঞান ফিরে পেলে ব্যাথায় আর্তনাদ করতে থাকে, কর্মীরা ভাবেন মৃত ব্যক্তি বেঁচে উঠলেন বুঝি! আর দেরি না করে ব্যক্তির প্রাথমিক চিকিৎসা করা হয়।

হাসপাতালের বিরুদ্ধে গাফিলতির অভিযোগ আনে পরিবার।