২৯০ ডলার খরচ করে কাস্টমার পেলেন ৫০০০ ডলারের ওয়াইন, এক টুইটেই ভাইরাল এই রেস্তরাঁ
৫০০০ ডলারের দুষ্প্রাপ্য ওয়াইন(Photo Credit: Twiter)

রেস্তরাঁয় পানাহারে গিয়েছেন। বেশ মৌজের সঙ্গে পান করার পরিকল্পনা, ভাগ্যলক্ষ্মী যেন দুহাত উপুড় করে বসেছিলেন। হলও তাই পকেট ফ্রেন্ডলি ওয়াইন অর্ডার করে মনের সুখে ফোন ঘাঁটছেন, সামনে চলে এল কাঙ্খিত পানীয়। তবে চেখেই বুঝলেন স্বাদের বদল ঘটেছে। মজার বিষয় হল স্বাদবদলে আনন্দ যেন বহুগণ বেড়ে গেল। হ্যাঁ কাস্টমারকে ভুল করে অনেক দামী দুষ্প্রাপ্য ওয়াইন সার্ভ করেছেন ওয়েটার। একটা দুটো টাকার হেরফের নয়, একেবারে পাঁচ হাজার ডলার। এককথায় কস্টলি মিস্টেক। তবে ভুল করলেও মহিলা ওয়েটারকে বকেনি রেস্তরাঁ কর্তৃপক্ষ। উল্টে কাস্টমারকেও পাঁচ হাজার ডলার পে করতে বাধ্য করেনি, বরং শান্তিতে তাঁকে পানে মগ্ন থাকতে সহযোগিতা করা হয়েছে। পরে নিজেদের ভুলচুক ও ক্ষমার বিষয়টি টুইটারে উল্লেখ করেছেন রেস্তরাঁর মালিক। ম্যাঞ্চেস্টারের (Manchester) ওই রেস্তোরাঁর নাম হকস্মুর(Hawksmoor), আর মালিক হলেন বেকেত(Beckett)। ইতিমধ্যেই সেই টুইট ভাইরাল হয়েছে।

জানা গিয়েছে, ম্যাঞ্চেস্টারের ওই বিলাসবহুল রেস্তরাঁর এক কর্মী এই কস্টলি মিস্টেক করে ফেলেন।এক কাস্টমার (Customer)অর্ডার করেছিলেন মাত্র ২৯০ ডলারের এক বোতল ওয়াইন। বদলে পেয়েছেন ৫ হাজার ডলারের ওয়াইন। ওই ব্যক্তির কপাল যে এক্কেবারে সোনায় মোড়া তা বলার অপেক্ষা রাখে না। রেস্তরাঁ কর্তৃপক্ষ অবশ্য প্রথমে নিজেরাও ব্যাপারটা বুঝতে পারেনি। তবে যতক্ষণে বুঝেছিল ততক্ষণে যা হওয়ার হয়ে গিয়েছে। কাস্টমারের টেবিলে পৌঁছে গিয়েছে ওই দুষ্প্রাপ্য ওয়াইন। তবে রেস্তোরাঁ কর্তৃপক্ষ অবশ্য ওই কাস্টমারকে ঘুণাক্ষরেও বুঝতে দেইয়নি নিজেদের ভুল। বরং বেশ আয়েশ করেই ওয়াইন উপভোগ করেছেন ওই কাস্টমার।

এই প্রসঙ্গে এক টুইট বার্তায় মালিক বেকেত বলেন, “কাস্টমার ব্যাপারটা বুঝতে পারেননি। আমি চাইনি কেউ অপ্রস্তুত হয়ে পড়ুক। তাই ব্যাপারটা নিয়ে জলঘোলা না করাই উচিত বলে মনে হয়েছি। কাস্টমারকে বলি, আশা করি আপনি ওয়াইনটা এনজয় করেছেন। আমাদের তরফে যা ভুল হয়েছে সেটা ভুলে যান। এটা নিছকই একটা ভুল মাত্র।“

এদিকে সোশ্যাল মিডিয়ায় আপাতত ভাইরাল ম্যাঞ্চেস্টারের ওই রেস্তোরাঁ কর্তৃপক্ষের টুইট। তাদের ‘কস্টলি মিসটেক’ ট্যাকল করার এ হেন কায়দা দেখে নেটিজেনরাও বেকেতের ফ্যান হয়ে গিয়েছেন।