11 Lakh Dowry: শ্বশুরবাড়ির ১১ লক্ষ টাকার পণ প্রস্তাব ফিরিয়ে দিলেন বর
ভারতীয় টাকা (Photo Credits: Pixabay)

জয়পুর, ১৪ নভেম্বর: শ্বশুরবাড়ির ১১ লক্ষ টাকার পণ (Dowry) প্রস্তাব ফিরিয়ে দিলেন বর (Groom)। দাবি মতো পণ না পেলে স্ত্রী (Wife) বা বাড়ির বউয়ের উপর শ্বশুরবাড়ি কিংবা স্বামীর (Husband) অত্যাচারের ঘটনা নতুন নয়। পণের বলি হয়ে বহু প্রাণ চলে যায় অকালে। অররহ তা উঠে আসে সংবাদ শিরোনামে (Headline)। কিন্তু সম্প্রতি রাজস্থানের জয়পুরে (Rajasthan Jaipur) ঘটে গিয়েছে এমনই এক ঘটনা, যা পণ নিয়ে আপনার এই ধারণা সম্পূর্ণ বদলে দেবে। শ্বশুরবাড়ির তরফে পণ হিসেবে প্রস্তাব করা ১১ লক্ষ টাকা ফিরিয়ে দিয়েছেন বর! আর এই ঘটনাই বর্তমানে সোশ্যাল মিডিয়ার (Social Media) রশদ হয়ে উঠেছে।

পাত্র আবার যে সে নন। দেশের জন্যে সদানিবেদিত প্রাণ এক জওয়ান (Soldier)। জানা গিয়েছে, গত শনিবার জয়পুরে জওয়ান জীতেন্দ্র সিংয়ের (Jitendra Singh) বিয়ে ছিল। খুশিমনেই জীতেন্দ্রকে পণ হিসেবে ১১ লক্ষ টাকা দিতে চায় মেয়ের বাড়ির লোকেরা (People)। কিন্তু সঙ্গেসঙ্গেই সেই প্রস্তাব (Proposal) ফিরিয়ে দিয়ে জীতেন্দ্র যা চান, তাতে অবাক হয়ে গিয়েছেন অনেকেই। এমন পাত্র পেয়ে গর্বের (Proud) শেষ নেই কনেপক্ষেরও। আরও পড়ুন: Moral Values: পকেটে পড়ে ছিল মাত্র ৩ টাকা, তবুও ৪০ হাজার টাকা ফেরালেন দিনমজুর!

জীতেন্দ্রর কথায় মেয়ের বাড়ির (Home) সকলে প্রথমে ভাবেন, হয়ত অসন্তুষ্ট হয়ে এমন কথা বলছেন পাত্র। কিন্তু সেই জটও নিজের হাতে খুলে দেন দেশসেবক। এই সময় পত্রিকার  খবর অনুযায়ী, জানান তিনি পণ প্রথার বিরোধী। এমন কথা শুনেই পাত্রকে বুকে জড়িয়ে ধরেন মেয়ের পরিজনরা। আইন পাশ করা চঞ্চল শিখাওয়াতকে পাত্রী হিসেবে পেয়ে খুশি জীতেন্দ্র। একইরকম খুশিও পাত্রীও। কর্মসূত্রে ছত্তিশগড়ে (Chattisgarh) থাকা জীতেন্দ্র প্রসঙ্গে কনের বাবা গোবিন্দ সিং শিখাওয়াত বলেন, মেয়ের জন্যে এমন জীবনসঙ্গী পেয়ে আমি নিশ্চিন্ত। এমন ছেলেকে জামাই ভাবতেও গর্বে বুক ভরে উঠছে। আশীর্বাদস্বরূপ কন্যা পক্ষের কাছে মাত্র ১১ টাকা ও একটি নারকেল (Coconut) চেয়েছেন তিনি।