Moral Values: পকেটে পড়ে ছিল মাত্র ৩ টাকা, তবুও ৪০ হাজার টাকা ফেরালেন দিনমজুর!
ভারতীয় টাকা (Photo Credits: Pixabay)

মুম্বই, ৪ নভেম্বর: স্ত্রীর (Wife) অপারেশনের জন্য ৪০ হাজার টাকা নিয়ে বাসে (Bus) চেপেছিলেন মুম্বইয়ের (Mumbai) এক ভদ্রলোক। ভুলবশত সেটি ফেলে রেখেই বাস থেকে নেমে যান তিনি। বাস থেকে নামতেই মনে পড়ল টাকা ভর্তি ব্যাগটি বাসে ফেলে রেখে এসেছেন তিনি। মাথায় হাত, কি করবেন ভেবে না পেয়ে অসহায় অবস্থায় দাঁড়িয়ে পড়লেন রাস্তায়। কিন্তু একটু পরেই ছুঁড়ে আসা একটা প্রশ্ন সমস্ত অসহায়তা থেকে মুক্তি দিল তাঁকে। হঠাৎ এক ব্যাক্তি ভগবানের দূতের মত উপস্থিত হয়ে জানতে চাইলেন- "এই ব্যাগটি কি আপনার?" শব্দ নয়, দু-চোখের হাসিতেই ভেসে এল উত্তর (Answer)। একটা প্রশ্নই যেন সমস্ত অস্বস্তি থেকে মুক্তি দিল তাঁকে। সম্প্রতি মহারাষ্ট্রের সাতারায় (Maharastra Satara) ঘটে গিয়েছে এমনই এক ঘটনা।

সততার এমন নজির হয় তো খুঁজলে মিলতে পারে। কিন্তু এরপর যা বলব, দেখুন তো সততার এমন উদাহরণ এর আগে আপনি শুনেছেন কিনা! ব্যাগটি উদ্ধার করে যিনি ওই ব্যক্তির হাতে তুলে দেন তিনি মহারাষ্ট্রের সাতারার বাসিন্দা ধনাজি জাগদালে (Dhanaji Jagdale)। বয়স ৫৪। পেশায় দিনমজুর। সেদিন সাতারার মান তালুকায় পিঙ্গালি গ্রামে যাচ্ছিলেন তিনি। ব্যাগটি সবার প্রথম দেখতে পেয়ে, বাসে উপস্থিত সকল যাত্রীদের কাছে ধনাজি জানতে চান এটি কারোর কিনা! করোর কাছেই উত্তর পাননি তিনি। লক্ষ্য করেন এক ভদ্রলোক অত্যন্ত অস্বস্তিতে রাস্তায় দাঁড়িয়ে রয়েছেন। তাই তাঁর কাছে গিয়ে তিনি জিজ্ঞাসা করেন ব্যাগটি তাঁর কিনা! ব্যাগটি পেয়ে ধনাজিকে হাজার টাকা পুরস্কার দিতে যান তিনি। কিন্তু তা সঙ্গে সঙ্গে নাকোচ করে দেন ধনাজি। সেইসময় ধনাজির কাছে বাসের ভাড়া দেওয়ার জন্য টাকা পর্যন্ত ছিল না। পকেটে পড়ে ছিল মাত্র ৩টাকা। গ্রামে ফিরে যাওয়ার জন্য ব্যাগের মালিকের কাছে বাসের ভাড়া হিসেবে মাত্র ১০টাকা চেয়ে নেন তিনি। আরও পড়ুন: Man Dressing Up As Bride: অকালমৃত্যু ঠেকাতে ৩০ বছর ধরে রোজ নববধূ সাজেন চিন্তাহরণ চৌহান!

এমন কাজের জন্য সাতারার বিজেপি বিধায়ক, প্রাক্তন সাংসদ ও অন্যান্য সংস্থা ধনাজিকে পুরস্কৃত করতে চেয়েছিলেন। কিন্তু সেই সম্মান নিতে রাজি হননি ধনাজি। ধনাজির কথায়, প্রত্যেক মানুষের মধ্যেই সততা (Honesty) রয়েছে। আর সেটাই মানুষ মানুষকে চেনায়। অর্থ ছাড়়া মানুষ বর্তমানে আর কিছু চেনে না। কিন্তু এখনও এমন মানুষ পৃথিবীতে (World) রয়েছে, যাঁরা নিঃস্ব হলেও সততাকে নিজের ধন বলে মনে করেন। উল্লেখ্য, ধনাজির গ্রামেরই এক যুবক রাহুল বার্গে সম্প্রতি আমেরিকায় বসবাস শুরু করেছেন। তিনি ধনাজিকে ৫ লক্ষ টাকা দেওয়ার কথা বললে, সেই প্রস্তাবও ফিরিয়ে দেন তিনি।