মায়ের পেটেই বক্সিংয়ে মাতল যমজ ভ্রূণ, ভিডিও ভাইরাল
ছবি প্রতীকী(Photo credit: Wikimedia Commons)

বাচ্চারা তো দুষ্টুমি করবেই, তাতে রাগারাগির কোনও কারণ নেই। তাহলে আর বাচ্চা বলেছে কেন। সে যাইহোক পেটের মধ্যেই লাফিয়ে বেড়াচ্ছে যমজ সন্তান(Twins) এমন খবর চমক লাগে বৈকি। চিনের(China) ইয়ানচুয়ান প্রদেশের একটি হাসপাতালে সন্তান সম্ভবা মহিলার আলট্রাসাউন্ট করা হলেই বিষয়টি প্রকাশ্যে আসে। স্ত্রী অন্তঃসত্ত্বা তাই গর্ভস্থ ভ্রূনের(fetus) গতিবিধি জানতে তাঁকে হাসপাতালে নিয়ে যান মিস্টার। তারপরই তো আসল ঘটনার সূত্রপাত।

বাচ্চারা কেমন আছে দেখতে গিয়েই হবু বাবা-মায়ের চোখ কপালে উঠেছে, একই অবস্থা কর্তব্যরত চিকিৎসকেরও৷ ভিডিওতে তাঁরা দেখলেন পেটের ভিতরে বক্সিং করছে দু’জনে৷ একজন থামছে তো আরেকজন শুরু করছে৷ কেউই হার মানার পাত্রী নয়৷ ফুটফুটে কন্যাসন্তানদের জন্মের পরই এই ভিডিও সোশ্যাল সাইটে(Social Media) আপলোড করেন ওই চিকিৎসক৷ তারপর যদিও তা ভাইরাল হতে বেশি সময় নেয়নি৷ চিনা একটি দৈনিকেও প্রকাশিত হয়েছে এমন আশ্চর্য ঘটনার কথা৷ বাচ্চাদের নাম রাখা হয়েছে চেরি ও স্ট্রবেরি।  ফুটফুটে দুই কন্যাসন্তানের জন্মের পরেই আলট্টা সাউন্ডের ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ায় প্রকাশ করা হয়। বলাবাহুল্য, ভিডিওটি ভাইরাল হতে সময় নেয়নি।

অনেকেই বলছেন, জন্মের আগে এমন বক্সিং করলেও, দুই বোনের নাকি দারুণ ভাবও হবে৷ আবার নেটিজেনদের একাংশ তো গর্ভস্থ ওই দুই সন্তানের মধ্যে কে বড় আর কে ছোট, তাও ওই আলট্রাসাউন্ড রিপোর্ট দেখেই নির্ধারণ করতে শুরু করেছেন৷ তাঁদের দাবি, যে বক্সিংয়ে জিতে গিয়েছে সেই বড়৷ চেরি-স্ট্রবেরিকে নিয়ে বেজায় খুশি তাদের বাবা-মা৷ তাও দম্পতির দাবি, বক্সিং করতে যেমন দেখা গিয়েছে৷ তেমনই আবার জানুয়ারির আলট্রাসাউন্ড রিপোর্টে দু’জনকে জড়িয়ে থাকার ছবিও দেখেছেন বাবা-মা৷ জন্মানোর পর যদিও চেরি-স্ট্রবেরির বেজায় ভাব৷ কান্না, খিদে, ঘুম-সবই নাকি এখন একসঙ্গে করতেই বেশি ভালবাসে দুই খুদে৷ তবে খুদেরা যাই করুক না কেন সেসব কাণ্ডকারখানা দেখে এদেশের মা-ঠাকুমারা হতবাক।