Supreme Court on Rape: স্বেচ্ছায় করা সম্পর্ক ব্যর্থ হলেই ধর্ষণের মামলা করতে পারে না কোনও মহিলা: সুপ্রিম কোর্ট
Supreme Court (Photo Credits: IANS)

নতুন দিল্লি, ১৫ জুলাই: "পুরুষ সঙ্গীর সঙ্গে স্বেচ্ছায় থাকা মহিলা সম্পর্ক (Relationship) ব্যর্থ হওয়ার পরে ধর্ষণের মামলা (Rape Case) করতে পারেন না" আজ একটি মামলায় এই পর্যবেক্ষণ করল সুপ্রিম কোর্ট (Supreme Court)। আদালত বলেছে, "একজন মহিলা, যিনি একজন পুরুষের সঙ্গে সম্পর্কে ছিলেন এবং স্বেচ্ছায় তাঁর সঙ্গে থাকতেন, সম্পর্ক খারাপ হওয়ার পরে ধর্ষণের মামলা দায়ের করতে পারবেন না।" মামলায় আবেদনকারীকে আদালত জামিনও দিয়েছে। বিচারপতি হেমন্ত গুপ্তা এবং বিক্রম নাথের বেঞ্চ উল্লেখ করেছে যে মহিলা চার বছর ধরে আবেদনকারী ব্যক্তির সঙ্গে সম্পর্কে ছিলেন। এছাড়াও, যখন সম্পর্ক শুরু হয়েছিল, সেই সময় মহিলার বয়স ছিল ২১ বছর।

বেঞ্চ বলেছে, "উক্ত সত্যের পরিপ্রেক্ষিতে অভিযোগকারী স্বেচ্ছায় ওই ব্যক্তির সঙ্গে থেকেছেন এবং তাঁদের মধ্যে সম্পর্ক ছিল। তাই, এখন যদি সম্পর্কটি না থাকে হয় তাহলে ৩৭৬ ধারার অধীনে অপরাধের জন্য এফআইআর দায়ের করার জন্য এটি একটি ভিত্তি হতে পারে না।" আরও পড়ুন: Monkeypox: দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ায় প্রথম মাঙ্কিপক্সের সংক্রমণ ভারতে, জানাল হু

একটি ধর্ষণের মামলায় আনসার মহাম্মদের আগাম জামিনের আবেদন খারিজ করেছিল রাজস্থান হাইকোর্ট। ১৯ মে জামিনের আবেদন খারিজ করে আদালত। সেই আদেশকে চ্যালেঞ্জ করে শীর্ষ আদালতে গিয়েছিলেন আনসার। শীর্ষ আদালত আনসারকে আগাম জামিন দিয়েছে। আনসারের বিরুদ্ধে ধর্ষণ, অপ্রাকৃতিক অপরাধ এবং অপরাধমূলক ভয় দেখানোর অভিযোগ ছিল। শীর্ষ আদালত তার রায়ে বলেছে, "আমরা বর্তমান আপিল মঞ্জুর করছি এবং হাইকোর্টের আদেশ স্থগিত করছি। উপযুক্ত কর্তৃপক্ষের সন্তুষ্টির জন্য আবেদনকারীকে জামিনে মুক্তি দেওয়ার নির্দেশ দেওয়া হচ্ছে।"

যদিও বেঞ্চ এটা স্পষ্ট করেছে যে বর্তমান আদেশে পর্যবেক্ষণগুলি কেবলমাত্র আগাম জামিনের আবেদনের সিদ্ধান্ত নেওয়ার উদ্দেশ্যেই। তদন্ত আদালতের পর্যবেক্ষণের দ্বারা প্রভাবিত না হয়ে এগিয়ে যাবে। অন্য কোনও আবেদনও যদি থাকে, তারও নিষ্পত্তি করা হবে।