Jago Bangla Issue: ডেরেক ও'ব্রায়েনকে নোটিস CBI-র, RTI-নিয়ে মুখ খোলায় চক্রান্তের অভিযোগ তৃণমূলের তারকা সাংসদের
তৃণমূল সাংসদ ডেরেক ও'ব্রায়েন। (Photo Credits: ANI/File)

নয়া দিল্লি, ২৭ জুলাই: 'জাগো বাংলা'(Jago Bangla) তহবিল তদন্তে এবার তৃণমূল কংগ্রেসের রাজ্যসভার সাংসদ ডেরেক ও'ব্রায়েন (Derek O’Brien)-কে ডেকে পাঠাল সিবিআই। আগামী পয়লা অগাস্ট দেশের রাজধানী শহরে তৃণমূলের দায়িত্ব সামলানো ডেরেক'কে হাজিরা দিতে যেতে হবে বলে খবরে প্রকাশ। তৃণমূল কংগ্রেসের প্রকাশক হলেন ডেরেক ও'ব্রায়েন। আর জাগো বাংলায় তহবিল তদন্তে তাই ডেরেক-কে ডাকা জরুরি বলে মনে করছেন সিবিআই।

গতকাল, রাতে বিভিন্ন সর্বভারতীয় সংবাদমাধ্যমে খবর প্রকাশ হতে থাকে, ১০ হাজার কোটি টাকার চিটফান্ড সংক্রান্ত মামলায় ডেরেকে-র নাম জড়ানোয় সিবিআই তাঁকে তদলব করে। সেই খবরে বলা হয়েছে, ডেরেককে নাকি অগাস্টের তৃতীয় সপ্তাহে সিবিআই দফতরে হাজিরা দিতে বলা হয়েছে। আরও পড়ুন- সারদাকাণ্ডের তদন্তে এবার মুকুল রায়কে ডাকবে সিবিআই

ডেরেকের আগে 'জাগো বাংলা'-র সম্পাদক সুব্রত বক্সিকে তলব করেছিল সিবিআই। 'জাগো বাংলা'র তহবিল সংক্রান্ত খুঁটিনাটি ব্যাপারে জানতে জানুয়ারিতে তোড়জোড় শুরু করেছিল সিবিআই। ওই মুখপত্রের ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টে তিন স্বাক্ষরকারীর একজন মানিক মজুমদারকে জিজ্ঞাসাবাদ করেছিলেন তদন্তকারী আধিকারিকরা। তার আগে গতবছর ডিসেম্বরে মুখ্যমন্ত্রীর বাড়িতে নোটিস পাঠিয়েছিল সিবিআই।

২৫ জুলাই, বৃহস্পতিবার তাঁকে নোটিস পাঠানো হয়েছে বলে জানান রাজ্যসভায় তৃণমূলের দলনেতা। ডেরেক অভিযোগ, রাজ্যসভায় আরটিআই আইনের সংশোধনী বিল নিয়ে বিরোধিতা করেছিল তৃণমূল। সে কারণেই পাঠানো হল নোটিস। সিবিআই তলবকে রাজনৈতিক উদ্দেশ্যপ্রণোদিত বলে অভিযোগ করেছে তৃণমূল শিবির।