Adhir Chowdhury Suspended From Lok Sabha: লোকসভায় মোদিকে বেনজির আক্রমণের জের! সাসপেন্ড অধীর চৌধুরী
ফাইল ফটো (Photo Credit: ANI/Twitter)

নয়াদিল্লি: বৃহস্পতিবার সকালে লোকসভায় অনাস্থা প্রস্তাব বিতর্কে বক্তব্য রাখতে গিয়ে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে তীব্র আক্রমণ করেন বহরমপুরের সাংসদ ও কংগ্রেসের সংসদীয় দলনেতা অধীর চৌধুরী (Congress MP Adhir Ranjan Chowdhury)। নাম না করে ধৃতরাষ্ট্র ও নীরব মোদির সঙ্গে তুলনা করেন। যার জেরে বেশ উত্তপ্ত হয়ে উঠেছিল লোকসভা। অমিত শাহ উত্তেজিত হয়ে নিজের চেয়ার ছেড়ে উঠে পড়েন।

একটা সময় বিজেপির সাংসদ বীরেন্দ্র অবস্তি ও অধীর চৌধুরীর মধ্যে তুমুল তর্কাতর্কি শুরু হয়। এর জেরে বিকেলে সংসদীয় বিষয়ক মন্ত্রী প্রহ্লাদ যোশী (Parliamentary Affairs Minister Pralhad Joshi) সংসদে প্রধানমন্ত্রী ও অন্যান্য মন্ত্রীদের (Prime Minister Narendra Modi and disturbing the ministers) প্রতি অধীর চৌধুরীর আচরণের নিন্দা করে তাঁকে সাসপেন্ড (Suspend) করার প্রস্তাব আনেন। প্রায় বিরোধীশূন্য কক্ষে সেই প্রস্তাব ধ্বনি ভোটে পাস হয়। অধীর চৌধুরীর বিষয়টিকে সংসদের প্রিভিলেজ কমিটির (Committee of Privileges) কাছে পাঠানোর সিদ্ধান্ত হয়েছে। তদন্ত পর তারা রিপোর্ট না দেওয়া পর্যন্ত বহরমপুরের সাংসদকে সাসপেন্ড রাখার সিদ্ধান্ত হয়েছে। পরে সংসদের বাইরে এই বিষয়ে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে অধীরবাবু বলেন, "আমি কাউকে আঘাত করতে চাইনি।"

তার আগে নিজের বক্তব্যের সময় নাম না করে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে কটাক্ষ করে অধীর চৌধুরী বলেন, "মণিপুর ও হস্তিনাপুরের মধ্যে কোনও তফাত নেই। তখনও ধৃতরাষ্ট্র অন্ধ ছিলেন এখনও তাই দেখা যাচ্ছে। তাঁর এই কথা শুনে উত্তেজিত হয়ে ওঠেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ। কংগ্রেস সাংসদের বিরুদ্ধে কড়া পদক্ষেপের গ্রহণ দাবি জানান কেন্দ্রীয় মন্ত্রী প্রহ্লাদ যোশী। বিজেপি সাংসদরা সবাই অধীরকে মোদির কাছে ক্ষমা চাইতে হবে বলে  চিৎকার করতে করতে থাকেন।"

এর মাঝেই ফের অধীর ফের বলেন, "নীরব মোদি বিদেশে ঘুরে বেড়াচ্ছেন। বিভিন্ন দেশে তাঁর ছবি দেখা যাচ্ছিল। তাই আমরা ভেবেছি তিনি বিদেশে চলে গেছেন। কিন্তু, এখন দেখছি তিনি এখানেই আছেন।" আরও পড়ুন: PM Modi Speaks On Manipur: মণিপুর ইস্যুতে লোকসভায় মুখ খুললেন মোদি, ভিডিয়োতে শুনুন প্রধানমন্ত্রীর বক্তব্য

দেখুন ভিডিয়ো: