Women's Reservation Bill: মহিলা সংরক্ষণ বিল 'আমাদের', সোনিয়া গান্ধীর দাবি ঘিরে জল্পনা
Photo Credits: ANI

নয়া দিল্লি, ১৯ সেপ্টেম্বরঃ সোমবার থেকে শুরু হয়েছে সংসদের বিশেষ অধিবেশন (Parliament special Session)। অধিবেশন শুরুর আগেই প্রধানমন্ত্রী বলেছিলেন ‘ঐতিহাসিক সিদ্ধান্ত’ নেওয়া হবে। এদিন সন্ধ্যা গড়াতেই প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর (Narendra Modi) অনুমোদনে কেন্দ্রীয় বৈঠকে মহিলা সংরক্ষণ বিলে (Women's Reservation Bill) ছাড়পত্র মিলেছে। এই বিল পাশ হলে লোকসভা এবং রাজ্য বিধানসভায় ৩৩ শতাংশ আসন মহিলাদের জন্য সংরক্ষিত থাকবে। মহিলা সংরক্ষণ বিলের ছাড়পত্রই কি তবে সেই সিদ্ধান্ত! জল্পনা তৈরি হয়েছে রাজনৈতিক মহলে। বিলটি সংসদে পেশ হওয়ার আগেই মঙ্গলবার কংগ্রেসের সংসদীয় দলের প্রধান সোনিয়া গান্ধী (Sonia Gandhi) বিলটিকে নিজেদের বলে দাবি করলেন।

বিশেষ অধিবেশনের প্রথম দিনটিই ছিল পুরনো সংসদ ভবনে শেষ অধিবেশন। মঙ্গলবার দ্বিতীয় দিন থেকে অধিবেশন বসবে নতুন সংসদ ভবনে (New Parliament Building)। এদিন নতুন সংসদে প্রবেশের মুখে সোনিয়া গান্ধীকে ছেঁকে ধরেন সাংবাদিকরা। মহিলা সংরক্ষণ বিল (Women's Reservation Bill) ঘিরে তাঁর অভিমত জানতে চান তারা। এক কথার উত্তরে তিনি কেবল বললেন, 'এটি আমাদের'।

বিশেষ অধিবেশনের দ্বিতীয় দিনে নতুন সংসদ ভবনে সোনিয়া গান্ধী... 

তবে সোনিয়া গান্ধী কিংবা কংগ্রেস একা নয়, ইতিহাসও একই কথা বলছে। ১৯৮৭ সালে তৎকালীন প্রধানমন্ত্রী রাজীব গান্ধী (Rajiv Gandhi) কেন্দ্রীয় মন্ত্রী মার্গারেট আলভার নেতৃত্বে ১৪ জনের একটি কমিটি গঠন করেন। ওই কমিটি মহিলাদের ক্ষমতায়নের জন্য ৩৫৩টি সুপারিশ করেছিল। যার মধ্যে অন্যতম ছিল  নির্বাচন ব্যবস্থায় মহিলাদের জন্য আসন সংরক্ষণ। বিশেষ করে পঞ্চায়েত ও পুরসভায়। ইউপিএ সরকারের আমলেও ২০১০ সালের ৯ মার্চ বিলটি রাজ্যসভায় পাশ হয়েছিল। কিন্তু লোকসভায় তা তোলা হয়নি।