Karnataka: স্কুলের 'সাথী', ভরসার অটো চালকের হাতেই শিশুর যৌন নিগ্রহ, অভিযোগ
প্রতীকী ছবি

বেঙ্গালুরু, ১৭ মার্চঃ রোজ যে অটো করে আপনার সন্তানকে স্কুলে পাঠান সেই অটো চালক আদেও বিশ্বাসযোগ্য তো? আপনার সন্তানকে সঠিক মানুষের হাতেই ছাড়ছেন তো? আপনার সন্তানের নিত্য স্কুলের 'সাথী', রোজ আপনার সন্তানকে দুবেলা যে স্কুলে দিয়ে আসছে, নিয়ে আসছে, তাঁর কোন খারাপ উদ্দেশ্য নেই তো? কখনও বিচার করছেন এই বিষয় গুলো?

আরও পড়ুনঃ আইফোনের হাতছানি, নিজেকে অপহরণের ছক যুবকের, মুক্তিপণে দাবি ৫ লক্ষ

কর্ণাটকে (Karnataka) এক সাত বছরের স্কুল ছাত্রী অটো চালকের যৌন নিগ্রহের শিকার ( Sexual Assault) হল। মেয়েটিকে রোজ ওই অটো চালকই স্কুলে দিয়ে আসতেন এবং নিয়ে আসতেন। সঙ্গে আরও কিছু স্কুল পড়ুয়া থাকত। সকলকে ছেড়ে সবার শেষে ওই মেয়েটিকে বাড়ি ছাড়তেন অটো চালক। এভাবাই একদিন স্কুল থেকে ফিরতি পথে অটো চালকের যৌন নিগ্রহের শিকার হয় বছর সাতেকের মেয়ে। বাড়িতে কাউকে কিছু জানালে প্রাণে মেরে দেওয়ার হুমকিও দেয় সে।

আরও পড়ুনঃ বুকের দুধ পান করতে গিয়ে শ্বাসরোধে মৃত্যু শিশুর, অবসাদে বড় ছেলেকে নিয়ে কুয়োয় ঝাঁপ মায়ের

অটো চালকের ভয়ে বাড়িতে কাউকে কিছু জানাতে পারেনি সে। ভিতরে ভিতরে গুমরে মরছিল। স্কুল যেতে চাইত না। দিনে দিনে অসুস্থ হয়ে পড়েছিল। মায়ের নজরে পড়তেই মেয়েকে জোর দিয়ে জানতে চায়। তখনই মেয়ে সবটা খুলে বলে মাকে। আকাশ ভেঙে পড়ে মায়ের মাথায়। সঙ্গে সঙ্গে অভিযুক্ত অটো চালকের বিরুদ্ধে থানায় অভিযোগ দায়ের করেন তিনি। পকসো আইনের (POCSO ACT) অধীনে মামলা দায়ের হয়েছে অটো চালকের বিরুদ্ধে। ঘটনাটি সামনে আসতেই অন্যান্য বাবা মায়েরা সাবধান হয়েছেন। যাদের সন্তানরা ওই অটো চালকের অটোয় স্কুল যেত তাঁদের প্রত্যেকেই সতর্ক হয়েছেন।