Suresh Angadi Dies: কেন্দ্রীয় রেল রাষ্ট্রমন্ত্রী সুরেশ অঙ্গাদির প্রয়াণে বৃহস্পতিবার অর্ধনমিত থাকবে রাজধানীর জাতীয় পতাকা
সুরেশ অঙ্গাদি (Photo Credits: ANI)

নতুন দিল্লি, ২৪ সেপ্টেম্বর: করোনা আক্রান্ত হয়ে প্রয়াত কেন্দ্রীয় রেল রাষ্ট্রমন্ত্রী সুরেশ অঙ্গাদি। মৃত্যুকালে তাঁর বয়স হয়েছিল ৬৫ বছর। সংসদের বাদল অধিবেশন শুরুর আগে সমস্ত নেতামন্ত্রীদের করোনা টেস্টের কথা বলা হয়। সেসময়ই কোভিড পজিটিভ ধরা পড়েন সুরেশ অঙ্গাদি। দিল্লির এইমসে ভর্তি ছিলেন। পরে তাঁর শারীরিক অবস্থার অবনতি হয়। বুধবার রাতে এইমস-এই শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করলেন সুরেশ অঙ্গাদি। এই প্রথম মোদির মন্ত্রিসভার কেউ করোনা আক্রান্ত হয়ে প্রাণ হারালেন। স্বরাষ্ট্র মন্ত্রকের টুইটে এক বিবৃতিতে জানিয়েছে, সুরেশ অঙ্গাদির মৃত্যুতে বৃহস্পতিবার ২৪ সেপ্টেম্বর দিল্লির সমস্ত সরকারি অফিসে জাতীয় পতাকা অর্ধনমিত থাকবে। রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোবিন্দ-সহ অনেক নেতামন্ত্রীই সুরেশ অঙ্গাদির মৃত্যুতে শোক প্রকাশ করেছেন।

রাষ্ট্রপতি এক টুইট বার্তায় বলেন, “কেন্দ্রীয় রেল রাষ্ট্রমন্ত্রী সুরেশ অঙ্গাদির প্রয়ামে আমি শোকাহত। এই উদার নেতা তাঁর নির্বাচনী কেন্দ্র কর্ণাটকের বেলাগাভির মানুষদের জন্য নিরন্তর পরিশ্রম করে গিয়েছেন। তাঁর শোকাহত পরিবার বর্গের প্রতি আমার সমবেদনা।” শোক জ্ঞাপন করেছেন স্বরাষ্ট্র মন্ত্রী অমিত শাহ। তিনি জানান, “দেশ ও বিজেপির জন্য নিঃস্বার্থ কাজ করে গেছেন সুরেশ অঙ্গাদি। সেজন্য তাঁকে শ্রদ্ধার সঙ্গে স্মরণ করা হবে। কর্ণাটকের বিজেপি নেতা তথা কেন্দ্রীয় রেল রাষ্ট্রমন্ত্রী সুরেশ অঙ্গাদির মৃত্যুর খবরে তীব্র যন্ত্রণা বোধ করছি। তাঁর পরিবারের প্রতি গভীর সমবেদনা জানাই। ওম শান্তি শান্তি শান্তি।” সুরেশ অঙ্গাদির প্রয়াণে গভীর শোকপ্রকাশ করেছেন প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী তথা জেডি(এস) সুপ্রিমো এইচ ডি দেবগৌড়া। ট্যুইট বার্তায় দেবগৌড়া তাঁকে 'ছোট ভাইয়ের মতো' বলে উল্লেখ করেছেন। একইসঙ্গে স্বজনহারা পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানিয়েছেন তিনি। আরও পড়ুন- IAF Rafale Squadron's First Woman Pilot Shivangi Singh: রাফাল যুদ্ধবিমান চালাবেন ভারতীয় মহিলা পাইলট লেফটেন্যান্ট শিবাঙ্গী

মন্ত্রিসভার সদস্যরা বলেন সদা হাস্যমুখ ছিলেন কর্নাটকের বেলাগাভির এই বিজেপি সাংসদ। তাঁর বয়স হয়েছিল মাত্র ৬৫ বছর। এদিন তাঁর মৃত্যুতে দল মত নির্বিশেষে রাজনীতিকরা শোক প্রকাশ করেছেন। কংগ্রেস নেতা জয়রাম রমেশ বলেন, “সুরেশের হাসিমুখটা মনে পড়ছে। ওঁর মৃত্যু সত্যিই দুর্ভাগ্যজনক।” কেন্দ্রে নরেন্দ্র মোদি মন্ত্রিসভার অনেকেই করোনাভাইরাসের আক্রান্ত হয়েছেন গত কয়েক মাসে। তাঁদের মধ্যে অন্যতম হলেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রী অমিত শাহ, কৃষি প্রতি মন্ত্রী কৈলাস চৌধুরী, আয়ুষ মন্ত্রী শ্রীপদ নায়েক, জলশক্তি মন্ত্রী গজেন্দ্র সিং শেখাওয়াত, পেট্রোলিয়াম মন্ত্রী ধর্মেন্দ্র প্রধান এবং সংসদ বিষয় প্রতি মন্ত্রী অর্জুন রাম মেঘওয়াল। এই প্রথম মোদির মন্ত্রিসভার একজন করোনায় প্রাণ হারালেন, তিনি সুরেশ অঙ্গাদি।