Biplab Deb:  ত্রিপুরার যাবতীয় শিল্পকীর্তি এবং স্থাপত্য গুঁড়িয়ে দেওয়ার পরিকল্পনা করেছিলেন মুঘলরা! বিস্ফোরক দাবি মুখ্যমন্ত্রী বিপ্লব দেবের
মুখ্যমন্ত্রী বিপ্লব দেব (Photo Credits: PTI)

আগরতলা, ১৯ নভেম্বর: ত্রিপুরার (Tripura) সাংস্কৃতিক ঐশ্বর্য বিশ্ববন্দিত। তা ধ্বংস করতে বিস্ফোরকের সাহায্যে রাজ্যের যাবতীয় শিল্পকীর্তি এবং স্থাপত্য গুঁড়িয়ে দেওয়ার পরিকল্পনা করেছিলেন মুঘলরা (Mughal)। আজ মঙ্গলবার এমনই দাবি করেন ত্রিপুরার মুখ্যমন্ত্রী বিপ্লব দেব (Tripura Cm Biplab Deb)। এদিন আগরতলার ধলেশ্বরে (Agartala Dhaleswar) শারদ সম্মান ২০১৯ পুরস্কার প্রদান অনুষ্ঠানে আমন্ত্রিত ছিলেন ত্রিপুরার মুখ্যমন্ত্রী। সেখানেই তিনি এমন মন্তব্য করেন। যা নিয়ে রীতিমত বিতর্কের ঝড় উঠেছে রাজনৈতিক মহলে।

এদিনের অনুষ্ঠানে গিয়ে মুখ্যমন্ত্রী বলেন, ত্রিপুরায় বিস্ময়ের শেষ নেই। কারণ অনেকে এখনও সে সম্পর্কে কিছু জানেন না। মুঘলরা পর্যন্ত ত্রিপুরার সংস্কৃতি নষ্ট করার জন্য রাজ্যের শিল্প ও স্থাপত্য বিস্ফোরণের সাহায্যে গুঁড়িয়ে দিতে চেয়েছিল! ত্রিপুরার সুবিখ্যাত মাতাবাড়ি মন্দির (Matabari Mandir) সম্পর্কে বলতে গিয়ে বিপ্লব বলেন, মাতাবাড়ি দেবী এতই জাগ্রত যে কচ্ছপরাও শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করার আগে মন্দির পর্যন্ত হেঁটে আসে। আর এই সমস্ত বিস্ময় সোশ্যাল মিডিয়ায় (Social Media) পোস্ট করা প্রয়োজন। কারণ অনেকেই ত্রিপুরার অসামান্য ও বিস্ময়কর সৌন্দর্য্য সম্পর্কে ওয়াকিবহাল নন। আরও পড়ুন: World Toilet Day: রূপান্তকামীদের জন্য শৌচাগার তৈরি হোক, দাবি তুলল তৃণমূল কংগ্রেস

সোশ্যাল মিডিয়ায় ত্রিপুরার সৌন্দর্য্য-সংস্কৃতি-পরম্পরা তুলে ধরার জন্য রাজ্যবাসীর কাছে আবেদন জানান তিনি। মুখ্যমন্ত্রীর মতে, প্রতিদিন যদি মাথাপিছু ত্রিপুরার সাংস্কৃতিক সৌন্দর্য্যের ৫টি ছবি (Photos) সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করা যায়, তবে বিশ্বজুড়ে প্রচার হবে।